আজ শুক্রবার এক বিবৃতিতে রাজশাহী ও ময়মনসিংহে দলীয় কর্মসূচিতে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীদের হামলার নিন্দা জানিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় বৃহস্পতিবার রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জে বিএনপির দোয়া অনুষ্ঠান পুলিশ তাণ্ডব চালিয়ে পণ্ড করে দেয়। আগের দিন ময়মনসিংহের পাগলা থানাধীন এলাকায় পৃথক কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ৪০টি মোটরসাইকেল জ্বালিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আক্তারুজ্জামান এবং তাঁর বৃদ্ধ মাসহ দলের অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মী আহত হন।

বিবৃতিতে রাজশাহীর বাগমারা ও ময়মনসিংহের পাগলার ঘটনা সরকারের পরিকল্পিত ও অসৎ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে ফখরুল দাবি করেন। তিনি এসব হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অগ্নিমূল্য, অর্থ পাচার আর দুর্নীতিতে বর্তমানে সরকার এমনভাবে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে আছে, সেটিকে আড়াল করার জন্যই সারা দেশে তারা সন্ত্রাসের পরিকাঠামো তৈরি করেছে। আর এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে প্রতিদিনই বিএনপির নেতা-কর্মীদের রক্ত ঝরছে। তিনি বলেন, বিএনপির কর্মসূচির কথা শুনলেই আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী প্রশাসন বিচলিত হয়ে পড়ে। মনে হয়, তাদের পায়ের নিচের মাটি কাঁপতে শুরু করেছে।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন