আজ বুধবার রাজধানীর সবুজবাগ বালুর মাঠে ‘দেশবিরোধী বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের’ প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কর্মসূচিতে এসব কথা বলেন যুবলীগের চেয়ারম্যান। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ এই কর্মসূচির আয়োজন করে।

যুবলীগ চেয়ারম্যান বিএনপির সমালোচনা করে বলেন, আপনারা দেশের জনগণকে ভিকটিম বানানোর স্পর্ধা দেখাবেন না। যুবলীগের নেতা-কর্মীরা এখনো মাঠে আছে। জনগণের জান–মালের নিরাপত্তা তারা রক্ষা করতে জানে। আমরা জানি, আপনাদের মতো কুচক্রী মহলকে কীভাবে রাজপথে মোকাবিলা করতে হয়।

যুবলীগ চেয়ারম্যান ফজলে শামস সংগঠনের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আপনাদের ঐক্যবদ্ধ ও ধৈর্যশীল হতে হবে। বিএনপি-জামায়াতের কৌশল আমাদের সন্ত্রাসী হিসেবে উপস্থাপন করা। তারা পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া করতে চাইবে। আপনারা ওদের ফাঁদে পা দেবেন না। কিন্তু রাজপথ ছাড়া যাবে না।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান বলেন, যুবলীগের নেতা-কর্মীরা সারা দেশে সোচ্চার। যুবসমাজ আজ ঐক্যবদ্ধ। জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যকে প্রতিহত করতে রাজপথে দাঁতভাঙা জবাব দেবে যুবলীগ।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন। সঞ্চালনা করেন মহানগর দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রেজাউল করিম। উপস্থিত ছিলেন হাবিবুর রহমান, আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী, মোয়াজ্জেম হোসেন, মৃণাল কান্তি জোদ্দার, তাজউদ্দিন আহমেদ, জসিম মাতুব্বর, বিশ্বাস মুতিউর রহমান, কাজী মো. মাজহারুল ইসলাম, মো. সাইফুর রহমান, আবু মুনির মো. শহিদুল হক চৌধুরী, মশিউর রহমান, জয়দেব নন্দী, সাদ্দাম হোসেন, দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন