আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে জাতীয় বেতার ভবনে বেতারের সদ্য প্রয়াত মহাপরিচালক আহম্মদ কামরুজ্জামানের স্মরণসভা শেষে হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন। তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি লাশের রাজনীতি করে। সে কারণেই তাদের লাশের রাজনীতির বলি হচ্ছে ভোলায় তাদের দুজন কর্মীর মৃত্যু। বিএনপি তাঁদের সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছিল ও কারও কারও হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছিল।’

ভোলায় পুলিশের ওপর গুলি করা হয়েছে দাবি করে হাছান মাহমুদ বলেন, গুলিতে পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। মানুষের সহায়-সম্পত্তি ধ্বংস করা হয়েছে। ভাঙচুর করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যকে তাদের (বিএনপি) দলীয় কার্যালয়ে ধরে নিয়ে, আটকে রেখে মারধর করা হয়েছে।

বিএনপির আন্দোলনের ঘোষণা নিয়েও কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিএনপি তো এখন ফাঁকা মাঠে আন্দোলন করছে। এখন শোকের মাস আগস্ট, সামনে শোক দিবস। আমরা পর্যবেক্ষণ করছি, যখন মাঠে নামব, পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না তাঁরা।’

অতিরিক্ত সচিব ও বাংলাদেশ বেতারের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক খাদিজা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন তথ্য ও সম্প্রচারসচিব মো. মকবুল হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

রাজনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন