বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি জানাতে ভিন্ন ভিন্ন ভঙিমার প্রচলন হলেও ডি কক এমন কিছু করেননি। আদতে এ আন্দোলনে ডি ককের সাড়া আছে কি না, এমন প্রশ্নও উঠে গিয়েছিল। ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা জানিয়েছিল, টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলার পরই নেওয়া হবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত। এরপর এক বিবৃতিতে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন ডি কক।

ডি কক ‘ক্ষমা’ চেয়ে বলেছিলেন, হঠাৎ ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার নেওয়া সিদ্ধান্তেই ‘বেঁকে বসেছিলেন’ তিনি, ‘শুরুতেই আমার সতীর্থ ও দেশের সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আমি কখনোই এটাকে ‘কুইন্টনের ঝামেলা’ বানাতে চাইনি। বর্ণবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গুরুত্ব আমি ভালোভাবেই বুঝি এবং খেলোয়াড় হিসেবে আমাদের যে দৃষ্টান্ত তৈরি করার দায়িত্ব আছে, সেটাও জানি। যদি আমি হাঁটু গেড়ে বসলে অন্যরা শিক্ষিত হয় এবং অন্যদের জীবন সহজ হয়ে যায়, আমি খুশিমনেই তা করব। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে না খেলে আমি কাউকে অসম্মান করতে চাইনি, ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে তো কোনোভাবেই নয়। অধিকাংশ মানুষ হয়তো বুঝতে পারেনি, ম্যাচ খেলার পথে, মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ আমাদের এটা জানানো হয়েছিল।’

default-image

তবে বোর্ডের সঙ্গে আলাপ করার পর এর উদ্দেশ্য পরিষ্কার হয় তাঁর কাছে, ‘আমার মনে হয়েছে যখন আমাকে ওভাবে একটা জিনিস করতে বলা হলো, তাতে আমার অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। গত রাতে বোর্ডের সঙ্গে সর্বশেষ যে আবেগময় আলাপ হলো, এখন তাদের উদ্দেশ্যটাও আমি আরেকটু ভালোভাবে বুঝতে পেরেছি। এটা আরও আগে করলেই ভালো হতো, তাহলেই ম্যাচের দিনের ঘটনাটা এড়ানো যেত।’

দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের পর বলেছিলেন, ডি ককের এমন সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিলেন তাঁরা। নিজের বিবৃতিতে অবশ্য বাভুমাকে ‘অসাধারণ একজন নেতা’ উল্লেখ করে তাঁকে সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন ডি কক। সতীর্থরা তাঁকে গ্রহণ করলে আবারও দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে খেলতে যেকোনো কিছু করবেন বলেও জানিয়েছিলেন তিনি।

default-image

আজ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে আবারও দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে খেলতে নামলেন এ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। জাতীয় সংগীতের পর ম্যাচ শুরুর আগে দেখা গেল কাঙ্ক্ষিত সে দৃশ্যটাও—হাঁটু গেড়ে অবশেষে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলনের সঙ্গে ডি ককও সংহতি জানালেন দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সবার মতো।

আগে ব্যাটিং করা শ্রীলঙ্কা ইনিংসে আজ একটা রান-আউট করেছেন ডি কক। তবে ১৪৩ রানের লক্ষ্যে ওপেনিংয়ে নেমে ১০ বলে ১২ রান করেই আউট হয়েছেন এ বাঁহাতি। ফাস্ট বোলার দুষ্মন্ত চামিরার হাতে ফিরতি ক্যাচ দিয়েছেন তিনি।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন