বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কার্যত গ্রুপ ২-এ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি নিউজিল্যান্ডের জন্য কোয়ার্টার ফাইনাল। ৪ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার আগে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা পাকিস্তানের পেছনে আছে তারা। অন্যদিকে পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে কোণঠাসা ভারত পরের দুই ম্যাচে আফগানিস্তান ও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে পেয়েছে দাপুটে জয়। তবে শেষ পর্যন্ত সেটা যথেষ্ট না-ও হতে পারে তাদের।

default-image

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে শোয়েব বলেছেন, ভারতে এগোচ্ছে ‘মিরাকল’-এর দিকেই, ‘বিশ্বকাপ বেশ আগ্রহজাগানিয়া হয়ে উঠেছে। মনে হচ্ছে, ভারত মিরাকলের দিকে এগোচ্ছে, যেটাকে অসম্ভব মনে হচ্ছিল। আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড বেশ চাপে থাকবে।’

ভারত শেষ পর্যন্ত নকআউট পর্বে যাক, এমন চান শোয়েব। তবে তাঁর এমন চাওয়ার কারণটা হলো, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি ভারতকে পাকিস্তানের সঙ্গে ফাইনালে দেখতে চাই। তাতে ভারতকে আরেকবার হারাতে পারবে পাকিস্তান। বিশ্বকাপটাও আরও বড় হয়ে উঠবে।’

অবশ্য পাকিস্তানিদের চাওয়াটা তাঁর মতো নয়, শোয়েব মনে করিয়ে দিয়েছেন সেটাও, ‘ভারতের ভাগ্য নিউজিল্যান্ডের হাতে। নিউজিল্যান্ড যদি হারে, তাহলে অনেক প্রশ্ন উঠবে। আমি আগেই সতর্ক করে দিচ্ছি। আমার আশঙ্কা, আরেকটা আলোচনার খোরাক হবে সেটা। বিতর্কে জড়াতে চাই না, তবে নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে এখন পাকিস্তানের অনুভূতি তীব্র।’

default-image

বিশ্বকাপের আগে নিরাপত্তা ইস্যুতে পাকিস্তান সফর স্থগিত করেছিল নিউজিল্যান্ড। টুর্নামেন্টে অবশ্য তাদের হারিয়েছে পাকিস্তান। এরপর সেই নিরাপত্তার ব্যাপার নিয়ে কিউইদের খোঁচাও দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা। নিরাপত্তার ব্যাপারটি আলাদা করে না বললেও এবার সেই নিউজিল্যান্ডের হারের কারণেই ভারত সেমিফাইনালে গেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেটে পড়বে বলে নিজের ‘আশঙ্কার’ কথা জানিয়েছেন শোয়েব, ‘আমার মনে হয়, নিউজিল্যান্ড আফগানিস্তানের চেয়ে ভালো দল। তবে খোদা না করুক, তারা যদি ভালো না খেলে হারে, সেটা বড় একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে। অমন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে আটকানো যাবে না। এটাও বিবেচনায় আনতে হবে আমাদের।’

আগামীকাল বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায় আবুধাবিতে হবে নিউজিল্যান্ড ও আফগানিস্তানের ম্যাচ। আর ভারত নিজেদের শেষ ম্যাচটি খেলবে আগামী সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়, নামিবিয়ার বিপক্ষে, দুবাইয়ে।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন