জয় সূচক গোলের পর ম্যান সিটির খেলোয়াড়দের উল্লাস
জয় সূচক গোলের পর ম্যান সিটির খেলোয়াড়দের উল্লাসছবি: টুইটার

শুরুর ছন্দ যেন দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে পেল ম্যানচেস্টার সিটি। পিছিয়ে পড়ার ধাক্কা সামলে ঘুরে দাঁড়াল দারুণভাবে। পিএসজিকে ২–১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠার পথে এগিয়ে গেল তারা।

ঘরের মাঠে মার্কিনিয়োসের গোলে শুরুটা দারুণ হয়েছিল সিটির। দ্বিতীয়ার্ধের মাঝপথে সমতা টানেন কেভিন ডে ব্রুইনে। এর সাত মিনিট পরই ব্যবধান গড়ে দেন রিয়াদ মাহরেজ।

নকআউট পর্বের প্রথম দুই রাউন্ডে বার্সেলোনাও বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে পিএসজির জয়ের নায়ক কিলিয়ান এমবাপ্পে এদিন ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। নেইমার মাঝে মধ্যে আলো ছড়ালেও কাজের কাজ করতে পারেননি তিনিও। আর শেষের দিকে ইদ্রিয়া গেয়ি লাল কার্ড দেখলে এক জন কম নিয়ে আর লড়াই-ই করতে পারেনি গতবারের রানার্সআপরা।

default-image
বিজ্ঞাপন

ম্যাচের পঞ্চদশ মিনিটে আনহেল দি মারিয়ার দারুণ কর্নারে লাফিয়ে কোনাকুনি হেডে দলকে এগিয়ে নেন মার্কিনিয়োস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের শেষ ১২ ম্যাচে এই নিয়ে পাঁচ গোল করলেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার।

৬৪তম মিনিটে পিএসজিকে চমকে দিয়ে সমতা টানে সিটি। বাঁ দিক থেকে ডে ব্রুইনের দারুণ এক ক্রসে বল সবার মাথার ওপর দিয়ে গিয়ে শেষ মুহূর্তে খানিকটা বাঁক খেয়ে জালে জড়ায়।

default-image

সাত মিনিট বাদে পিএসজির জালে আবারও বল! মাহরেজের ফ্রিকিকে বল কিম্পেম্বে ও পারেদেসের মাঝ দিয়ে জালে জড়ায়।

একটু পরই ইলকাই দিনদোয়ানকে পেছন থেকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন সেনেগালের মিডফিল্ডার গেয়ি। বাকি সময়ে সমতা টানার আর কোনো সুযোগই তৈরি করতে পারেনি পিএসজি।

বিজ্ঞাপন
খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন