বিজ্ঞাপন

ছয় বছর পর বেনজেমার ওপর সে রাগ কমেছে দেশমের। বেনজেমা দলে থাকলে সতীর্থদের ওপর কুপ্রভাব পড়বে - সে সময়ে যে কোচ এই বক্তব্য দিয়েছিলেন, দলের স্বার্থে সে কোচই এখন বেনজেমাকে অন্যতম ভরসা মানছেন। গোটা ব্যাপারটায় ভালবুয়েনা কী ভাবছেন? সে ঘটনায় ক্যারিয়ার তো ভালবুয়েনারও শেষ হয়েছিল!

আরএমসি স্পোর্তকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ৩৬ বছর বয়সী এই উইঙ্গার জানিয়েছেন, বেনজেমার ওপর কোন রাগ নেই তাঁর। দেশম যে বেনজেমাকে দলে ডেকেছেন, সেটা নিয়েও তাঁর কোনো সমস্যা নেই, ‘বেনজেমা যদি জাতীয় দলকে তাঁর পারফরম্যান্স দিয়ে সাহায্য করতে পারে, তো সেটা তাঁর জন্যও ভালো, ফ্রান্সের জন্যও ভালো, যা হওয়ার খেলার মাঠেই হবে। এটা কোচের সিদ্ধান্ত।’

দলে কাকে ডাকা উচিত আর কাকে না, এ বিষয়ে দেশমের ওপর পূর্ণ আস্থা আছে ভালবুয়েনার, ‘আমার মতে, যত যা-ই হোক, দিদিয়ের একজন চ্যাম্পিয়ন। এখানে তাঁর হারানোর কিছু নেই। তাঁর এই সিদ্ধান্ত কাজে লাগলে আমরা বলব, বেনজেমা জাতীয় দলের সঙ্গে মিশে যেতে পেরেছে। বেনজেমা ভালো না খেললেও আমরা দেশমকে দোষ দেব না। তিনি জানেন কীভাবে দল ঘোষণা করতে হয়, কাকে কাকে ডাকা উচিত। তিনি এসব ব্যাপারে অনেক বুদ্ধিমান।’

default-image

অতীত নিয়ে আর ঘাঁটাঘাঁটি করেন না ভালবুয়েনা, তাঁর কথায় সেটাই বোঝা গেছে, ‘দেশম কি বেনজেমাকে দলে ডাকার আগে আমাকে জানিয়েছে? না। সত্যি বলতে কি, আমি আশাও করিনি যে তিনি আমাকে জানাবেন। আমি আমার নিজের জীবন নিয়ে খুশিই আছি। এখনো খেলে আনন্দ পাই আমি। এর চেয়ে বেশি কিছু বলার নেই আমার।’

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন