বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রোনালদোর দলবদলের আগের দিন, অর্থাৎ গত ২৬ আগস্ট ইংলিশ সংবাদমাধ্যম পুরোপুরি নিশ্চিত করে জানিয়ে দিল, ম্যান সিটির সঙ্গে রোনালদোর ব্যক্তিগত চুক্তি নিয়ে সব বোঝাপড়া হয়ে গেছে। জুভেন্টাস আর ম্যান সিটির মধ্যে সমঝোতা হলেই রোনালদো হয়ে যেতেন ম্যান সিটির। কিন্তু ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই নাটকের ভিন্ন পরিণতি!

দৃশ্যপটে আবির্ভাব রোনালদোর সাবেক ক্লাব, ম্যানচেস্টারের আরেক ক্লাব ইউনাইটেডের। যে ইউনাইটেডের জার্সি গায়েই প্রথম তারকা হওয়ার স্বাদ পান রোনালদো। ২৭ আগস্ট বাংলাদেশ সময় বিকেলে সিটি জানিয়ে দিল, তারা রোনালদোকে কেনার দৌড়ে আর নেই। তার কয়েক ঘণ্টা পর ইউনাইটেড জানিয়ে দিল, রোনালদো ‘ঘরে’ ফিরছেন!

default-image

অথচ ২৪ ঘণ্টা আগেও রোনালদোর দলবদলে রিয়াল মাদ্রিদ, পিএসজি, ম্যানচেস্টার সিটির নাম যতটা শোনা গিয়েছিল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের নাম বলতে গেলে শোনাই যায়নি। জেডন সানচো ও রাফায়েল ভারানকে নিয়ে এমনিতেই আনন্দে থাকা ইউনাইটেড ভক্তদের আনন্দ বাঁধ ভাঙল অবিশ্বাস্য এ খবরে। গোটা ভক্তকুলকে রোনালদো কীভাবে নাড়িয়ে দিয়েছেন, সেটা বোঝা গেল লাভ দ্য সেলস ডটকমের প্রকাশ করা এক তথ্যে। এই তথ্যের ওপর ভিত্তি করে খবর প্রকাশ করেছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এএস।

হাজারের বেশি বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের বিক্রির তথ্য হিসাব রাখার জন্য বিখ্যাত এই ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে এএস জানিয়েছে, রোনালদোর জার্সি বিক্রি করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের স্পনসর অ্যাডিডাস এর মধ্যেই ১৮ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ডের মতো আয় করেছে, যা মেসির পিএসজি জার্সি বিক্রির প্রায় দ্বিগুণ। ওয়েবসাইটটি জানিয়েছে, মেসির একটি জার্সি বিক্রি হলে রোনালদোর বিক্রি হচ্ছে প্রায় দুটি।

লাভ দ্য সেলস আরও জানিয়েছে, ‘রোনালদো ৭ শার্ট’ লিখে মানুষ আগের চেয়ে প্রায় ৬০০ শতাংশ বেশিবার অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করছেন। যেসব জার্সির দোকান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অফিশিয়াল বিক্রেতা, তাদের মধ্যে ২৫ শতাংশ দোকানের সব জার্সি বিক্রি শেষ।

লাভ দ্য সেলস দাবি করেছে, রোনালদোকে কিনতে দলবদল ফি বাবদ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের যা খরচ হয়েছে, জার্সি বিক্রি বাবদ এর মধ্যেই তা উশুল করে ফেলেছে ক্লাবটি।

default-image

শেফিল্ড হ্যালাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া অর্থায়ন বিভাগের জ্যেষ্ঠ প্রভাষক ডক্টর ড্যান প্লামলি জানিয়েছেন, অ্যাডিডাসের সঙ্গে ইউনাইটেডের চুক্তি অনুযায়ী জার্সির দামের পাঁচ থেকে সাত শতাংশ যায় ক্লাবের কোষাগারে। সে হিসাবে জার্সি বিক্রি বাবদ এর মধ্যেই ১ কোটি ৩১ লাখ পাউন্ডের মতো জমা হয়ে গেছে ক্লাবের কোষাগারে।

জুভেন্টাসকে ১ কোটি ২৯ লাখ পাউন্ড দিয়ে রোনালদোকে দলে টেনেছে ইউনাইটেড। সে হিসাবে রোনালদোকে আনার খরচ তো উঠেই গেছে ইউনাইটেডের!

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন