default-image

অস্ট্রেলিয়া, ভারত ছাড়া কারা শিরোপার শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারে, সে বিশ্লেষণও করেছেন পন্টিং। এ ক্ষেত্রে তিনি এগিয়ে রাখছেন ইংল্যান্ডকে, ‘আমার আসলেই মনে হয়, ইংল্যান্ডের সাদা বলের দলটা দুর্দান্ত। খাতা–কলমে সবচেয়ে বেশি ক্লাস ও ম্যাচজয়ী আছে ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডেই।’

গতবার অবশ্য ভারত বিদায় নিয়েছিল সুপার টুয়েলভ থেকেই। চিরপ্রতিন্দ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে হারের ধাক্কাই মূলত ছিটকে দিয়েছিল তাদের। পাকিস্তান শেষ পর্যন্ত সেমিফাইনালে খেলেছিল, যেখানে তাদের সঙ্গী ছিল অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড।

default-image

সম্প্রতি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও কোচ ওয়াকার ইউনিস পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ের দারুণ সম্ভাবনা দেখলেও পন্টিং ঠিক এ ব্যাপারে নিশ্চিত নন। তাঁর এমন মনোভাবের পেছনে মূল কারণ পাকিস্তানের ব্যাটিং–ই, ‘যদি বাবর (আজম) দুর্দান্ত এক টুর্নামেন্ট না কাটাতে পারে, তাহলে আমার মনে হয় না তারা জিতবে।’

default-image

এমনিতে বাবরের দারুণ প্রশংসাই করেছেন পন্টিং, ‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে তাকে খুব কাছ থেকে দেখেছি। তখনই বলেছিলাম, এ ছেলে অনেক দূর যাবে টেস্ট ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রে। আর গত কয়েক বছরে তো আরও অনেক উন্নতি করেছে।’

তবে দলের সমন্বয়ের দিক দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় পিছিয়ে পড়বে পাকিস্তান, পন্টিং মনে করেন এমন, ‘তাদের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানরা গুরুত্বপূর্ণ (ভূমিকা রাখবে), নতুন বলের বোলাররাও। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ায় স্পিনারদের ভূমিকা একটু কঠিন হবে, উইকেট যখন সহায়তা করবে না।’

তবে সব মিলিয়ে পাকিস্তানের পাশাপাশি নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও ফাইনাল খেলার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করেন পন্টিং। আগামী ১৬ অক্টোবর শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব। সুপার টুয়েলভ শুরু হবে ২২ অক্টোবর। আগামী ১৩ নভেম্বর মেলবোর্নে হবে ফাইনাল।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন