বিজ্ঞাপন

গাঙ্গুলীর মতে, কোহলিদের সঙ্গে পরিবার যাওয়া উচিত, ‘খেলোয়াড়েরা এমনিতেই জৈব সুরক্ষিত বলয়ে গত ৮০ দিন ধরে আছে। তাঁদের সঙ্গে পরিবার না আসার কোনো কারণ দেখি না আমি। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ড চেষ্টা করছে যাতে আমাদের খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাঁদের পরিবারকেও আনা যায়। দেখা যাক কি হয়। হয়তো পরিবারও যাবে খেলোয়াড়দের সঙ্গে।' অস্ট্রেলিয়ার সংবাদপত্র নিউ এইজ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অস্ট্রেলিয়ায় করোনাভাইরাস প্রোটোকল কেমন হতে পারে তারও একটা ধারণা পাওয়া গিয়েছে গাঙ্গুলির কথা থেকে, 'আপাতত যা বুঝতে পারছি, সফরের প্রথম অংশ সিডনিতে হবে। আমরা এখনো আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি জৈব সুরক্ষা বলয় ও মেডিকেল সংক্রান্ত ব্যাপারে, কারণ এটা একটা দীর্ঘ সফর হতে যাচ্ছে। আমাকে বলে হয়েছে অস্ট্রেলিয়া এখন কোভিড মুক্ত, খুব বেশি করোনাভাইরাস আক্রান্ত নেই সেখানে। সবকিছু যেন ঠিকঠাক হয় সেটা নিশ্চিত করার জন্য আমরা কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।'

default-image

কিছুদিন আগে ভারতীয় সংবাদপত্র ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছিল, করোনার ঝুঁকি নিয়ে খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাঁদের পরিবার পাঠানোর কোনো যুক্তি খুঁজে পাচ্ছে না বিসিসিআই। ফলে আরব আমিরাত থেকে কোহলিরা সোজা অস্ট্রেলিয়ায় উড়াল দিলেও, আনুশকাদের ফিরতে হবে ভারতে। তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে সফর শুরু করবে ভারত। এরপর শুরু হবে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। এর মধ্যে অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রথম টেস্টটাই হবে দিনরাতের, খেলা হবে গোলাপি বলে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন