বিজ্ঞাপন
default-image

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দ্রুততম ডেলিভারির রেকর্ড গড়া শোয়েব পিটিভি স্পোর্টসকে বলেছেন, ‘কখনো ভালো সময় কাটবে, কখনো আবার খারাপ। আমিরের বোঝা উচিত বাবা মিকি আর্থার তাকে বাঁচাতে সব সময় থাকবেন না। কখনো কখনো পরিপক্ব হয়ে উঠতে হয়। এটা আমিরের জন্যই বলছি। এটা বুঝতে হবে ম্যানেজমেন্ট কারও ইচ্ছানুযায়ী চলবে না। তাই নিজের পারফরম্যান্সের মান বাড়াতে হবে এবং কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।’ ২০১৬ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত পাকিস্তান ক্রিকেট দলের কোচ ছিলেন মিকি আর্থার। স্পট ফিক্সিংয়ে জড়ানোর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ করে ২০১৬ সালে পাকিস্তান দলে ফেরেন আমির। তবে আগের সেই আমিরকে খুঁজে পাওয়া যায় খুব কমই।

default-image

মোহাম্মদ হাফিজের উদাহরণ টানেন শোয়েব। ৪০ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার দলে জায়গা নিয়ে যখনই প্রশ্নের মুখে পড়েছেন, তখনই রান করে নিজেকে প্রমাণ করেছেন বলে মনে করেন শোয়েব। তাঁর ভাষায়, ‘ম্যানেজমেন্ট হাফিজের পক্ষে ছিল না। সে কিন্তু রান করা ছাড়া আর কিছুই করেনি। ম্যানেজমেন্টকে টাকাপয়সা দেয়নি। হাফিজের কাছ থেকে শেখা উচিত আমিরের।’

default-image

আজমলও আমিরকে পারফর্ম করে ফিরতে বলেছেন জাতীয় দলে, ‘আমির যা যা বলেছে, মনে হচ্ছে সে অবিচারের শিকার হয়েছে। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট এবং তার মধ্যে কী ঘটেছে, সেসব আমি জানি না। সে বলছে, মিসবাহ (প্রধান কোচ) ও ওয়াকার (বোলিং কোচ) দায়িত্ব ছাড়লেই শুধু পাকিস্তানের হয়ে খেলবে। কোচের পদত্যাগ দাবি করা কোনো খেলোয়াড়ের জন্য ঠিক নয়। কোনো দাবিদাওয়া পেশ করার আগে আমিরের উচিত পারফর্ম করে জায়গা নিশ্চিত করা।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন