অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০০৫ সালে সেঞ্চুরির পর আশরাফুল।
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২০০৫ সালে সেঞ্চুরির পর আশরাফুল। ছবি: সংগৃহীত

সবচেয়ে কম বয়সী টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান মোহাম্মদ আশরাফুল করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) বরিশালের হয়ে এবার খেলছেন আশরাফুল, সেখানে নিয়মিত করোনা পরীক্ষায় আজ পজিটিভ হয়েছেন ৩৬ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান। প্রথম আলোকে সে খবর নিশ্চিত করেছেন আশরাফুল নিজেই।

করোনার কোনো উপসর্গ অবশ্য আশরাফুলের নেই। বাংলাদেশের জার্সিতে অভিষেকে সেঞ্চুরির কীর্তি গড়া আশরাফুল জানাচ্ছেন, তাঁর ধারণা, তাঁর করোনা ধরা পড়াটা আসলে ‘ফলস পজিটিভ’।

জাতীয় ক্রিকেট লিগে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলে বরিশাল থেকে ঢাকায় ফেরার পর আশরাফুলসহ বরিশালের পুরো দলের করোনা পরীক্ষা হয়েছে। সেখানে শুধু আশরাফুলেরই পজিটিভ এসেছে। কিন্তু নিশ্চিত হতে আজ আবার করোনার নমুনা জমা দিয়েছেন আশরাফুল। আজ রাতে সেই পরীক্ষার ফল আসার কথা। নেগেটিভ হলে কাল মাঠে নামবেন তিনি। বিকেএসপিতে কাল দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে রাজশাহীর বিপক্ষে খেলবে বরিশাল।

বিজ্ঞাপন

এর আগে জাতীয় লিগে সব সময় ঢাকা বিভাগ কিংবা ঢাকা মেট্রোর হয়ে খেলে এলেও গত বছর থেকে বরিশালের হয়ে খেলছেন আশরাফুল। এবার প্রথম ম্যাচে অবশ্য খুব একটা বলার মতো কিছু করতে পারেননি। ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে বরিশালে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৪৮ রান করেছিলেন আশরাফুল, দ্বিতীয় ইনিংসে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে মাত্র ১ রান। দুই ইনিংসেই ইনিংস উদ্বোধন করেছেন বাংলাদেশের জার্সিতে ৬১ টেস্ট, ১৭৭ ওয়ানডে ও ২৩টি টি-টোয়েন্টি খেলা ‘অ্যাশ’। বরিশাল ম্যাচটা হেরে যায় ৮ উইকেটে।

গত কয়েক সপ্তাহে বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গেছে। কদিন ধরে প্রতিদিনই সাড়ে তিন হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর আসছে, মৃত্যুর সংখ্যা বেশির ভাগ দিনই থাকছে ৩০-এর ঘরে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আজকের তথ্য—আজ করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৯০৮ জন, মারা গেছেন ৩৫ জন।

default-image

জাতীয় লিগেও করোনা হানা দিতে বাদ রাখেনি। গত বৃহস্পতিবার খবর আসে, ম্যাচের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর জানতে পেরেছেন জাতীয় দলের পেসার ইবাদত হোসেন। সিলেটের হয়ে জাতীয় লিগের প্রথম রাউন্ডে খুলনার বিপক্ষে ম্যাচের তিন দিনই খেলেছেন ইবাদত। কিন্তু বুধবার মৃদু লক্ষণ দেখা দিলে করোনা পরীক্ষা করানো হয় তাঁর। বৃহস্পতিবার সেই পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। পরে খুলনার বিপক্ষে ম্যাচটির চতুর্থ দিনে আর খেলেননি ইবাদত। আইসিসির নতুন নিয়ম মেনে ইবাদতের ‘লাইক-ফর-লাইক’ বদলি হিসেবে নামানো হয় পেসার রেজাউর রহমানকে।

ইবাদতের আগে করোনা ধরা পড়ে ঢাকা মেট্রোর বাঁহাতি ওপেনার সাদমান ইসলামেরও। প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি। এখন আছেন আইসোলেশনে। সুস্থ হলে খেলবেন কাল শুরু হতে যাওয়া দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে।

শুধু ঘরোয়া ক্রিকেট কেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও কদিন ধরে ক্রিকেটারদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলছে। কদিন আগে পাকিস্তানের কিংবদন্তি অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান করোনা পজিটিভ হয়েছেন। আর গতকাল এসেছে কিংবদন্তি ভারতীয় ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকারের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন