default-image

এক ক্রিকেট ম্যাচ কত কি না দেখালো! আইপিএলে আজ মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের ১৭৬ রান তাড়া করতে করতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব খেই হারিয়ে ম্যাচ নিল সুপার ওভারে। সেখানে মাত্র ৫ রান করে আবার মুম্বাইকে ৫ রানে আটকেও ফেলল পাঞ্জাব। এরপর আবার সুপার ওভার! সেখানে মুম্বাই ১২ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় পাঞ্জাবকে। সেই রান দুই বল বাকি থাকতে পার করে পাঞ্জাব। শেষ পর্যন্ত দ্বিতীয় সুপার ওভারে এসে মুম্বাইয়ের কাছ থেকে ২ পয়েন্ট ছিনিয়ে নিল পাঞ্জাব।
২০১৯ আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর সুপার ওভারের নিয়ম পাল্টায়। গত বিশ্বকাপ ফাইনালে চার-ছক্কার সংখ্যার বিচারে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জেতে ইংল্যান্ড। এরপর আইসিসি কড়া সমালোচনার মুখে নিয়ম পাল্টায়। নতুন নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচের ফয়সালা না হওয়া পর্যন্ত একের পর এক সুপার ওভার চলবেই। আজই প্রথমবার নতুন নিয়ম দেখা গেল ক্রিকেট মাঠে।
তবে ম্যাচ এতো দূর গড়ানোর কথাও ছিল না। দুবাইয়ের মাঠে মুম্বাই আগে ব্যাট করে কুইন্টিন ডি কক (৫৩) ও কাইরন পোলার্ডের (১২ বলে ৩৪) ব্যাটে ১৭৬ রান তোলে। সেই রান পাঞ্জাব সহজেই তাড়া করবে ভাবা হচ্ছিল, আর সেটি অধিনায়ক লোকেশ রাহুলের কারণে (৫১ বলে ৭৭)।

বিজ্ঞাপন
default-image

মুম্বাইয়ের মূল বোলার জসপ্রিত বুমরা পাঞ্জাবের সহজ কাজ করে তোলেন কঠিন। ১৮তম ওভারে এসে রাহুলকে আউট করেন বুমরা। এরপর দিপক হুদা দ্রুত কিছু রান যোগ করলেও সঙ্গীর অভাবে বিপদে পড়ে পাঞ্জাব। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৯ রান দরকার ছিল পাঞ্জাবের। সেখানে ট্রেন্ট বোল্ট দুর্দান্ত বোলিং করে ম্যাচ নেন সুপার ওভারে।
প্রথম সুপার ওভারে পাঞ্জাবের অধিনায়ক রাহুল, নিকোলাস পুরান ও দিপক হুদা মিলে মাত্র ৫ রান নেন। বুমরার অবিশ্বাস্য বোলিংয়ে একটি বাউন্ডারিও মারতে পারেননি পাঞ্জাবের তিন ব্যাটসম্যান। কিন্তু মুম্বাইয়ের দুই ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা ও ডি কককে এই ৬ রানের লক্ষ্যও স্পর্শ করতে দেননি পাঞ্জাবের পেসার মোহাম্মদ শামি। বুমরার মতোই ইয়র্কারে কাবু করেছেন রোহিতদের।

বিজ্ঞাপন
default-image

শেষ পর্যন্ত ফয়সালা হয় দ্বিতীয় সুপার ওভারে। এবার মুম্বাইয়ের দুই হার্ড হিটার কাইরন পোলার্ড ও হার্দিক পান্ডিয়া মিলে ১১ রান যোগ করেন। জবাবে পাঞ্জাবের ক্রিস গেইল নেমে প্রথম বলেই বোল্টকে ছক্কা মেরে ম্যাচ পাঞ্জাবের হাতের মুঠোয় এনে দেন। আরেক প্রান্তে থাকা মায়াঙ্ক আগারওয়াল পরে টানা দুই চার মেরে শেষ করেন অনুষ্ঠানিকতা।
মজার ব্যাপার হচ্ছে, আজ আইপিএলে দিনের প্রথম ম্যাচ খেলেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। সেই ম্যাচও সুপার ওভারে জিতেছে কলকাতা।

মন্তব্য পড়ুন 0