বিপিএল দেখতে অপেক্ষা করতে হচ্ছে ২০২২ সাল পর্যন্ত।
বিপিএল দেখতে অপেক্ষা করতে হচ্ছে ২০২২ সাল পর্যন্ত।ফাইল ছবি

করোনার কারণে গত মৌসুমে বিপিএল মাঠে গড়ায়নি। বিসিবির ঘরোয়া ক্রিকেটের খসড়া সূচি ঠিক থাকলে ২০২১ সালেও হবে না টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি। অষ্টম বিপিএলের জন্য বিসিবি সময় রেখেছে ২০২২ সালের ১৪ জানুয়ারি থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ২০২৩ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হবে নবম বিপিএল।

কয়েক সপ্তাহ ধরেই ২০২৩ সাল পর্যন্ত ঘরোয়া ক্রিকেটের সূচি তৈরির কাজ করছে বিসিবি। ২০২১ সালের সূচিতে বিপিএল না থাকা প্রসঙ্গে কাল বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা এখনই চূড়ান্ত কিছু বলতে পারছি না। যখন সময় হবে, তখন এ ব্যাপারে বলা যাবে।’

বিজ্ঞাপন

করোনাকালে প্রথম শ্রেণির আসর জাতীয় লিগের খেলা দিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরবে বাংলাদেশ। বিসিবির সূচি অনুযায়ী ২২ মার্চ শুরু হবে ২২তম জাতীয় লিগ। ছয় মাস পর এ বছরের অক্টোবরেই শুরু হবে ২৩তম জাতীয় লিগ।

default-image
গত বছর স্থগিত হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জন্য আগামী মে ও জুন মাসে তিনটি ফাঁকা সময় রেখেছে বিসিবি।

২০২২ ও ২০২৩ সালেও অক্টোবর-নভেম্বরের সময়টাই রাখা আছে জাতীয় লিগের জন্য। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক প্রথম শ্রেণির টুর্নামেন্ট বিসিএল শুরু হবে জাতীয় লিগের পরই। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসটা বিসিএলের জন্য ফাঁকা রেখেছে বিসিবি।

গত বছর স্থগিত হওয়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জন্য আগামী মে ও জুন মাসে তিনটি ফাঁকা সময় রেখেছে বিসিবি। তবে স্থগিত হওয়া প্রিমিয়ার লিগের সময় অনেকটাই নির্ভর করছে এশিয়া কাপের ওপর। তবে ২০২২ ও ২০২৩ সালে এপ্রিল-মে মাসে প্রিমিয়ার লিগ আয়োজনের পরিকল্পনা বিসিবির।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন