রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে বাংলাদেশ লিজেন্ডসের বিপক্ষে শচীন টেন্ডুলকার।
রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে বাংলাদেশ লিজেন্ডসের বিপক্ষে শচীন টেন্ডুলকার।ছবি: টুইটার

মাঠের ২২ গজে ব্যাট হাতে দর্শকদের প্রচুর বিনোদন উপহার দিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার। ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট করে দর্শকদের আরেক দফা বিনোদন দিলেন এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার। ভারতের রায়পুরে চলছে রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ। এই সিরিজে আজ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলছে ভারত। এই ম্যাচে নামার আগে নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে করোনা টেস্ট করাতে হয়েছে টেন্ডুলকারকে। কিন্তু টেস্ট করাতে গিয়ে টেন্ডুলকার যা করলেন, এতে রীতিমতো হকচকিয়ে গেলেন স্বাস্থ্যকর্মীরাও।

পিপিই কিট পরে টেন্ডুলকারের নমুনা নিচ্ছিলেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। ওই সময় নিজের নাক ধরে হঠাৎ মুখটা বিকৃত করে ফেলেন টেন্ডুলকার এবং ব্যথা পাওয়ার অভিনয় করেন। মুখে অদ্ভুত শব্দও করেন। টেন্ডুলকারের এই অবস্থা দেখে ঘাবড়ে যান ওই স্বাস্থ্যকর্মী। ভেবেছিলেন টেন্ডুলকারের হয়তো কোনো সমস্যা হয়েছে। কিন্তু পরমুহূর্তেই ধন্দ কাটে ওই স্বাস্থ্যকর্মীর। দেখেন টেন্ডুলকারের মুখে একগাল হাসি। অর্থাৎ মজার ছলে একটু ভয় দেখানোর চেষ্টা করছেন লিটল মাস্টার। গোটা ঘটনার ভিডিও টেন্ডুলকার নিজেই পোস্ট করেছেন ইনস্টাগ্রামে। সঙ্গে লিখেছেন, ‘আমি ২০০ টেস্ট খেলেছি। আর ২৭৭ বার কোভিড টেস্ট করেছি। মুড হালকা করতে একটু প্রাঙ্ক করলাম। মেডিকেল স্টাফদের অনেক ধন্যবাদ সব সময় আমাদের পাশে থাকার জন্য।’ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে টেন্ডুলকারের এই ভিডিও।

বিজ্ঞাপন

অবশ্য এই ভিডিওর পাশাপাশি টেন্ডুলকারের আরেকটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। নিজের ইনস্টাগ্রামে ওই ভিডিও শেয়ার করেছেন ভারতের সাবেক ওপেনার বীরেন্দর শেবাগ। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে টেন্ডুলকারের কনুইয়ে কয়েকটা সুচ ফোটানো রয়েছে। সেটা দেখিয়ে শচীনের একসময়ের সতীর্থ শেবাগ বলছেন, ‘দেখেন আমাদের ভগবানকে। এখনো খেলা ছাড়ছেন না। সুচ ফুটিয়েও খেলে যাচ্ছেন।’ জবাবে টেন্ডুলকারের আরেক সতীর্থ অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং বলেন, ‘তুমি শের। ও হচ্ছে বব্বর শের। এত সহজে ও হারবে না।’ এই ভিডিওতেও মজা করতে দেখা গেছে সবাইকে।

অবসরের পর ফেস্টিভ্যাল ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ঘিরে পুরোনো সতীর্থদের সঙ্গে টেন্ডুলকারের সময়টা যে বেশ ভালোই কাটছে, তা না বললেও চলে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন