টসে হেরে ফিল্ডিং করবে বাংলাদেশ
টসে হেরে ফিল্ডিং করবে বাংলাদেশছবি: টুইটার

টি–টোয়েন্টি সিরিজে প্রায় নতুন দল নিয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ দল। সাকিব আল হাসান সিরিজের শুরু থেকেই নেই। টি-টোয়েন্টি থেকে ছুটি নিয়ে দেশে ফিরছেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। এই ম্যাচ থেকে কাঁধের চোট ছিটকে দিল আরেক অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিমকেও। তিন অভিজ্ঞবিহীন ম্যাচে আজ হ্যামিল্টনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টসে হেরে ফিল্ডিং করবে বাংলাদেশ দল।

তবে নতুন দল নিয়ে নামলেও শুরুতেই নিউজিল্যান্ডকে ধাক্কা দিতে পেরেছে বাংলাদেশ। উইকেট তুলে নিয়েছেন বাংলাদেশ দলে অভিষিক্ত বাঁ হাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ। তিনি ফিরিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের অভিষিক্ত ফিন অ্যালেনকে। ১ রান স্কোরবোর্ড তুলেই প্রথম উইকেট হারাল নিউজিল্যান্ড।

এদিকে, সাকিব, তামিম আর মুশফিকের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে না থাকার অর্থ ২৫১টি আন্তর্জাতিক টি–টোয়েন্টির সমান অভিজ্ঞতা হারাচ্ছে বাংলাদেশ। এই প্রথম সাকিব, তামিম ও মুশফিকের যে কোনো একজন ছাড়া টি-টোয়েন্টি খেলতে নামছে বাংলাদেশ। তিন সংস্করণের হিসেবে এমন ঘটনা বাংলাদেশ ক্রিকেটে ২০০৬ সালের পর ঘটেনি।

বিজ্ঞাপন

অভিজ্ঞরা না থাকায় বড় পরীক্ষাই দিতে হবে নতুন চেহারার বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলকে। আজ এক ঝাঁক তরুণদের নিয়ে মাঠে নামছেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। মুশফিক না থাকায় উইকেটকিপিং করবেন ওপেনার লিটন দাস। তামিমের জায়গায় আরেক ওপেনার হিসেবে খেলবেন তরুণ বাঁহাতি ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম। আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসানও আছেন মূল একাদশে। তবে ব্যাটিংয়ের মূল দায়িত্ব সামলাতে হবে লিটন, সৌম্য সরকার ও মাহমুদউল্লাহকে। মোহাম্মদ মিঠুন চাইবেন ওয়ানডে সিরিজের ছন্দ টি-টোয়েন্টিতেও ধরে রাখতে।

টি-টোয়েন্টি অভিষেক হচ্ছে বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ ও বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলামের। তবে বোলিং আক্রমণটা মূলত নির্ভর করবে দুই পেসার মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও মেহেদীর অফ স্পিনের ওপর।

প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডের অবস্থাও অনেকটা বাংলাদেশের মতো। নিউজিল্যান্ড দলের নিয়মিতদের মধ্যে থাকছেন না কেন উইলিয়ামসন, ট্রেন্ট বোল্ট, মিচেল স্যান্টনার, কাইল জেমিসন, জিমি নিশাম এবং টিম সেইফার্ট। এদের মধ্যে বোল্ট, জেমিসন ও নিশামের গতি ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশকে যথেষ্ট ভুগিয়েছে। আইপিএলের কারণে এই পাঁচ ক্রিকেটারের না থাকাটা এক অর্থে বাংলাদেশের জন্য স্বস্তিরই।

default-image

তবে অভিজ্ঞ পেসার টিম সাউদি খেলবেন টি-টোয়েন্টি সিরিজে। উইলিয়ামসনের না থাকায় তিনিই অধিনায়কত্ব করবেন। তিন ফাস্ট বোলার লকি ফার্গুসন, অ্যাডাম মিলনে ও হ্যামিশ বেনেট খেলবেন টি-টোয়েন্টি সিরিজে। উইকেট শিকারি হিসেবে দুই লেগ স্পিনার ইশ সোধি ও টড অ্যাস্টলের দুজনের একজনকে ব্যবহার করবে কিউইরা। মূল ব্যাটসম্যানরা না থাকলেও ব্যাটিংয়ে তাণ্ডব চালানোর মতো ব্যাটসম্যানের অভাব নেই কিউইদের। অভিজ্ঞ মার্টিন গাপটিল তো আছেনই। সর্বশেষ ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করা ডেভন কনওয়ে ও ড্যারেল মিচেলের সঙ্গে মার্ক চ্যাপম্যান, গ্লেন ফিলিপসরা নতুন হলেও বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের জন্য পরিচিত।

তবে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের সব আলোচনা এখন তরুণ ব্যাটসম্যান ফিন অ্যালেনকে ঘিরে। ২১ বছর বয়সী এই তরুণকে নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং অর্ডারের ভবিষ্যৎ ধরা হচ্ছে। ২০১৮ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ খেলা অ্যালেন ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির এক মৌসুমে ২৫ ছক্কা মেরে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। জাতীয় দলে খেলার আগেই ডাক পেয়েছেন আইপিএল দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু দলে। আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে অভিষেক হচ্ছে অ্যালেনের।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন