সমালোচকদের দারুণ জবাব কোহলির।
সমালোচকদের দারুণ জবাব কোহলির।ছবি: রয়টার্স

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের শুরু থেকেই গুঞ্জন ভাসছিল বাতাসে। বিরাট কোহলি ফর্ম হারিয়ে ফেলেছেন! তাঁর মানের ব্যাটসম্যান টেস্ট সিরিজে অন্তত সেরা ফর্মে ছিলেন না। টি–টোয়েন্টি সিরিজেও প্রথম ম্যাচে বাজে আউট হয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক। কিন্তু কাল দ্বিতীয় ম্যাচে কোহলি ফিরেছেন নিজের চেনা রূপে। উইকেটের চারপাশে স্ট্রোক খেলা এই ব্যাটসম্যানের ৪৯ বলে ৭৩ রানের ইনিংসে সাত উইকেটে ইংল্যান্ডকে হারায় ভারত।

চোখের প্রশান্তির জন্য কোহলির এই ইনিংসটি ছিল দুর্দান্ত। ৩ ছক্কা ও ৫ চারের এই ইনিংসে আবারও বোঝা গেল, ‘ফর্ম এদিক–সেদিক হতে পারে কিন্তু মান চিরন্তন।’ আর অসাধারণ এই ইনিংসের নেপথ্য কারিগর হিসেবে স্ত্রী আনুশকা শর্মা ও এবি ডি ভিলিয়ার্সের কথাও বললেন ভারত অধিনায়ক। ম্যাচের আগে এ দুজনের প্রেরণাই নাকি ফর্মে ফিরে এনেছে কোহলিকে।

default-image

খেলার জগতে একটি চিরায়ত কথা হলো, মনমতো কিছু করতে না পারলে নিজের মৌলিক বিষয়ে ফিরতে হয়। অর্থাৎ আবারও গোড়া থেকে শুরু করতে হয়। ব্যাটিংয়ের একেবারে মৌলিক বিষয়গুলোর একটি হলো, বলটা ভালোভাবে দেখা। কোহলি এসব ‘বেসিকস’–এ ফিরেই সাফল্যের মুখ দেখলেন। কাল জিতে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১–১ ব্যবধানে সমতায় ফেরার পর সংবাদমাধ্যমকে কোহলি বলেছেন, ‘নিজের মৌলিক বিষয়গুলোয় ফিরতে হয়েছে। সম্ভবত মাথার মধ্যে অনেক কিছু কাজ করছিল। দলের হয়ে দায়িত্ব পালনে আমার সব সময়ই গর্ব হয়। তাই সত্তরোর্ধ্ব রান করতে পেরে আরও বেশি ভালো লাগছে।’

default-image
বিজ্ঞাপন

এরপরই ডি ভিলিয়ার্স ও আনুশকার প্রসঙ্গ তোলেন কোহলি। আইপিএল দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে ডি ভিলিয়ার্স ও কোহলি সতীর্থ। মাঠের বাইরেও দুজনের রয়েছে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক এবং বেশ ভালো বন্ধু। অভিষিক্ত ইশান কিষানের সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ৯৪ রানের জুটি গড়ে জয়ের ভিত গড়েন কোহলি। নিজের ফর্মে ফেরার নেপথ্যে এ দুজনের নাম উল্লেখ করে কোহলি বলেন, ‘বলের ওপর চোখ রেখেছিলাম। ম্যানেজমেন্ট আমার সঙ্গে কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলেছে। আনুশকাও এখানে আছে, সে–ও আমার সঙ্গে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে কথা বলেছে। আর এই ম্যাচের আগে ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে বিশেষ আলাপ হয়েছিল। সে আমাকে শুধু বলটা ভালোভাবে দেখতে বলেছে।’

অভিষিক্ত ওপেনার ইষান কিষানের ৩২ বলে ৫৬ রানের ইনিংসেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন কোহলি, ‘ইষানের কথা বলতেই হয়। আমি শুধু নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করেছি। কিন্তু ইষান প্রতিপক্ষের কাছ থেকে ম্যাচটা কেড়ে নিয়েছে। অভিষেকেই দারুণ এক ইনিংস। তাকে আন্তর্জাতিক বোলারদের বড় বড় ছক্কা মারতে দেখেছি আমরা। (কাল) আজ তার এই পাল্টা আক্রমণ এবং আমাদের জুটিটা ভীষণ দরকার ছিল।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন