তামিম নিজেকে কত নম্বর দেন?

বিজ্ঞাপন
default-image
>

তামিম ইকবালের সময়টা এতটাই বাজে যাচ্ছে, কিছুতেই যেন কিছুই হচ্ছে না। না ভালো করতে পারছেন ব্যাটিংয়ে, না ভালো করতে পারছেন অধিনায়ক হিসেবে।

শ্রীলঙ্কা সফরের আগের দিন নিয়মিত ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা চোটে পড়ায় হঠাৎই দায়িত্ব পেয়েছিলেন তিনি। শ্রীলঙ্কা সফর শেষ দিকে। অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে কত নম্বর দেবেন তামিম ইকবাল?

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে তিনটি ম্যাচে তিনি দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, প্রতিটিতেই বাংলাদেশ হেরেছে বড় ব্যবধানে। ২০১৭ সালে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট হেরেছে ৯ উইকেটে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৯১ আর গত ওয়ানডেতে হেরেছে ৭ উইকেটে। দলের ফল দেখে তামিমকে যদি নম্বর দিতে হয়, খুব সহজ অঙ্ক: ৩ x ০ = ০! তিনটি ম্যাচেই বাঁহাতি ওপেনার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে ব্যর্থ হয়েছেন।

অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে কীভাবে মূল্যায়ন করবেন, এ প্রশ্নে কাল কলম্বোয় সংবাদ সম্মেলনে তামিম অধিনায়কত্ব-বিষয়ক সেই চিরায়ত কথাটাই মনে করিয়ে দিলেন, ‘আগেই বলেছিলাম অধিনায়ক ততটাই ভালো যতটা ভালো তাঁর দল। সিরিজ হেরে গেছি। এখানে আমার কিছু দেওয়ার নেই। নিজের কাজটা ঠিকঠাক করতে পারলে এটা হতো না। নিজেকে কীভাবে মূল্যায়ন করব, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। দল কতটা ভালো করল সেটাই হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। সত্য হচ্ছে যে দল হিসেবে ভালো করতে পারিনি। অধিনায়কত্ব মূল্যায়নের বিষয় না। শুধু আমার না, দুই-তিনটা ম্যাচ দেখে একজন অধিনায়ক বা খেলোয়াড়কে রেট করতে পারবেন না। দুটি ম্যাচ দেখে যদি রেট করতেই হয় বলতে হবে আমরা দল হিসেবে ভালো করিনি।’

দল ভালো করতে পারিনি, সেটির দায় তামিমকে নিতেই হচ্ছে। দলের অন্যতম সিনিয়র ক্রিকেটার, রানখরায় ভুগছেন। আউট হচ্ছেন দৃষ্টিকটুভাবে। রান পাচ্ছেন না দলের আরেক সিনিয়র মাহমুদউল্লাহ। দলের এ দুঃসময়ে নিজেদের ব্যর্থতার দায় নিচ্ছেন তামিম। তবে জানিয়ে রাখলেন এই দুঃসময় চিরস্থায়ী নয়, ‘অধিনায়ক হিসেবে বাদ দিলাম, একজন খেলোয়াড় হিসেবে অনুভব করি, যখন দল ভালো করে না তখন তাদের দিকেই তাকিয়ে থাকবে যারা গত অনেক বছর যারা অনেক রান করেছে। তারা অনেক বেশি ম্যাচ খেলেছে, তাদের অনেক অভিজ্ঞতা আছে। যা কাজে লাগিয়ে তাদের এগিয়ে আসার কথা। এটা হতাশার, যখন দরকার আমরা ভালো করতে পারছি না। এখন যেটা করতে পারি, চেষ্টা করতে পারি। কিন্তু কিছু সময় আসে অনেক কিছু আপনার নিয়ন্ত্রণে থাকবে না। তবে এটা সব সময়ই থাকবেন না। এটা (দুঃসময়) শেষ হবে এবং রান করা শুরু করব।’

তামিম যেন বলতে চাইলেন, রাতের আঁধারের পরই আসে ভোরের আলো। আঁধারটা কতক্ষণে কাটে সেটিই হচ্ছে কথা।
আজ সিরিজের শেষ ম্যাচটা অগুরুত্বপূর্ণ, কে বলল!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন