সকাল সকাল জোড়া আঘাত তাসকিনের।
সকাল সকাল জোড়া আঘাত তাসকিনের।ছবি: এএফপি

দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই সাফল্য। পাল্লেকেলের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনটা ছিল ভুলে যাওয়ার মতোই। গোটা দিনে শরীফুল ইসলামের কল্যাণে কেবল সেঞ্চুরিয়ান দিমুথ করুনারত্নের উইকেটটিই নিতে পেরেছিল বাংলাদেশ। ১ উইকেটে ২৯১ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শুরু করেই অবশ্য কিছুটা বিপদে শ্রীলঙ্কা। টানা ৩ উইকেট তুলে নিয়ে এখন ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ। জোড়া আঘাত তাসকিনের। তিনি ফিরিয়েছেন অপর সেঞ্চুরিয়ান লাহিরু থিরিমান্নে ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকে। বাঁ হাতি স্পিনার তাইজুলের বলে অফ স্টাম্পের বাইরে খোঁচা দিতে বাধ্য হয়ে আউট হয়েছেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। তিনি স্লিপে ক্যাচ দিয়েছেন নাজমুল হোসেনকে।

দ্বিতীয় দিনটাও যে প্রথম দিনের মতো যেন না হয়, সেটিই লক্ষ্য বাংলাদেশের বোলারদের। সে পথে অবশ্য হাঁটতে অবশ্য খুব বেশি দেরি করেননি তাসকিন আহমেদ। সেঞ্চুরি করা আরেক ওপেনার থিরিমান্নেকে তো ফিরিয়েছেনই, ফিরিয়েছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকেও। দুই ক্ষেত্রেই তাঁর সহযোগী লিটন দাস। থিরিমান্নে লেগ স্টাম্পের ওপর করা বলে গ্ল্যান্স করতে গিয়ে পরাস্ত হয়েছেন। বল ব্যাট ছুঁয়ে চলে গেছে উইকেটকিপার লিটন দাসের গ্লাভসে। আর ম্যাথুসের দুর্দান্ত এক ক্যাচ ধরেছেন ওই লিটন। তাসকিনের বলটি ছিল অফ স্টাম্পের বাইরে। থিরিমান্নে ১৪০ রান করেছেন ২৯৮ বলে, ১৫ বাউন্ডারিতে। ম্যাথুস অবশ্য ফিরেছেন ৫ রান করে। এর কিছুক্ষণ পরেই ডি সিলভাকে আউট করেন তাইজুল। অফ স্টাম্পের ওপর করা বলে খোঁচা মেরেই বিপদে পরেন ডি সিলভা। ক্যাচটি ধরেন কাল ক্যাচ মিস করে সমালোচিত নাজমুল হোসেন।

default-image
বিজ্ঞাপন

আজ সকাল থেকে বেশ ধীর গতিতে ব্যাটিং করছে শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। এক পর্যায়ে ১৮ ওভারে লঙ্কানরা স্কোরবোর্ডে তুলেছিল মাত্র ৩০ রান। মধ্যাহ্ন বিরতির আগ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩৩৬। ওসাদা ফার্নান্দোর সঙ্গে জুটি বেঁধে আছেন পাথুম নিশাঙ্কা।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন