অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে আজ ১২ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন কোহলি।
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে আজ ১২ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন কোহলি। ছবি: এএফপি

মাত্র ২৩ রান দরকার ছিল তাঁর ১২ হাজার রানের। এই ২৩ রান আজ না করতে পারলেও ওয়ানডেতে দ্রুততম ১২ হাজার রানের রেকর্ডটা যে তাঁরই হতো, তা নিয়ে সংশয় কি একটুও ছিল?

আগের রেকর্ডটি ছিল শচীন টেন্ডুলকারের, তিনি ১২ হাজার রান করেছিলেন ৩০০তম ইনিংসে। আর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজ কোহলি খেলতে নেমেছেন নিজের ২৪২তম ইনিংস। আজ ১২ হাজার রান না হলেও দ্রুততম ১২ হাজারের রেকর্ড গড়তে আরও ৫৮ ইনিংস তো ছিলই!

কিন্তু কোহলি অত অপেক্ষায় থাকলেন না। ক্যানবেরায় আজ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে ১২তম ওভারের প্রথম বলে মাইলফলকটা ছুঁয়ে ফেলেন ভারত অধিনায়ক। হলো রেকর্ডও।

বিজ্ঞাপন

যাঁকে আদর্শ মেনে বেড়ে উঠেছিলেন, সেই টেন্ডুলকারের চেয়ে ৫৮ ইনিংস কম খেলেই ওয়ানডেতে ১২ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছে গড়লেন নতুন রেকর্ড।

তবে এমন দিনে কোহলি গড়লেন ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ‘লজ্জা’র আরেক রেকর্ডও।

সেটি কী রেকর্ড? ২০২০ সালে এটিই কোহলির শেষ ওয়ানডে। আজকের আগে বছরে ৯টি ওয়ানডে খেলে কোনো সেঞ্চুরি করতে পারেননি। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৪৩টি সেঞ্চুরি করা কোহলি তিন অঙ্কে পৌঁছাতে পারেননি আজও। ক্যারিয়ারে প্রথমবার ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির স্বাদ না পেয়ে কোনো বছর শেষ করছেন!

২০০৮ সালে ভারতের জার্সিতে ওয়ানডে অভিষেকের পর কখনো এমন হয়নি। এই প্রতিবেদন লেখার সময়ে কোহলি আউট হয়ে গেছেন ৬৩ রান করে। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ভারতের রান ৩৩ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫৫।

সেঞ্চুরি না হোক, আপাতত কোহলি ভাসছেন দ্রুততম ১২ হাজার রানের রেকর্ড গড়ার প্রশংসায়। ওয়ানডে ইতিহাসে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে ১২ হাজারি ক্লাবে ঢুকলেন কোহলি। টেন্ডুলকার তো ছিলেনই, কোহলির আগে এই ক্লাবে ঢোকা অন্য চার ব্যাটসম্যান হলেন কিংবদন্তি অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক রিকি পন্টিং ও শ্রীলঙ্কার তিন কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারা, সনৎ জয়াসুরিয়া ও মাহেলা জয়াবর্ধনে।

default-image

কোহলির এই ক্লাবে যেতে ২৪২ ইনিংস লেগেছে, টেন্ডুলকারের লেগেছে ৩০০ ইনিংস—তা তো আগেই জানা গেছে। পন্টিংয়ের ১২ হাজারের ক্লাবে ঢুকতে লেগেছে ৩১৪ ইনিংস, সাঙ্গাকারার ৩৩৬ ইনিংস, জয়াসুরিয়ার ৩৭৯ ইনিংস ও জয়াবর্ধনের লেগেছে ৩৯৯ ইনিংস। কোহলির এত কম ইনিংসে রেকর্ডটা গড়াই বলে, এই সংস্করণে এখন পর্যন্ত এতটা দাপট আর কেউ দেখাতে পারেননি। কেউ কখনো পারবেন কি?

বিজ্ঞাপন

আজকের ম্যাচের আগে কোহলির ওয়ানডে রেকর্ডটা ছিল এমন—২৪১ ইনিংসে ১১৯৭৭ রান, গড় ৫৯.২৯, স্ট্রাইক রেট ৯৩.৩২। সেঞ্চুরি ৪৩টি, হাফসেঞ্চুরি ৫৯টি। আজ শন অ্যাবটের করা ১২তম ইনিংসের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে ১২ হাজারের ক্লাবে ঢুকেছেন তিনি।

default-image

তবে একটা জায়গায় কোহলির সঙ্গে টেন্ডুলকারের মাইলফলক ছোঁয়ায় পার্থক্য থেকেই যাবে; সেটি মাইলফলক ছোঁয়ার ম্যাচের গুরুত্বে! টেন্ডুলকার সে সময়ে দ্রুততম ১২ হাজার রানের রেকর্ডটা গড়েছিলেন ২০০৩ বিশ্বকাপে, পাকিস্তানের বিপক্ষে সেই রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে।

পাকিস্তানের ২৭৩ রানের জবাবে ভারতকে ৬ উইকেটে জেতানোর পথে মাত্র ৭৫ বলে টেন্ডুলকারের ৯৮ রানের চোখধাঁধানো ইনিংসটি এখনো চোখে লেগে আছে অনেকের। সে তুলনায় কোহলির কীর্তিটি আসছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এরই মধ্যে হেরে যাওয়া সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে। সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই জিতে সিরিজ এরই মধ্যে জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

মন্তব্য করুন