বিজ্ঞাপন
আপনি জানেন না যে রিজওয়ানকে নিয়ে আপনি কী করছেন। রিজওয়ানও এটা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে।
শোয়েব আখতার

পাকিস্তান দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের একজন রিজওয়ান। কিন্তু জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে তাঁকে খেলানো হয়েছে ৭ নম্বর ও ৬ নম্বর পজিশনে। রিজওয়ানকে নিয়ে নির্বাচকদের এমন সিদ্ধান্ত মোটেও পছন্দ হয়নি শোয়েবের, ‘আপনি জানেন না যে রিজওয়ানকে নিয়ে আপনি কী করছেন। রিজওয়ানও এটা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে।’

default-image

পাকিস্তান দলটা নিয়ে যে এভাবে ‘ছেলেখেলা’ করা যায় না, সেটাই বললেন শোয়েব। এই দলটাকে কারও ব্যক্তিগত সম্পত্তি হিসেবেও দেখতে চান না তিনি, ‘এটা কারও চাচার দল নয় যে আপনি চাইলেই সব ফরম্যাটে যে কাউকে ওপেন করাতে পারেন। দল আপনাকে যে ভূমিকায় দেখতে চায় সেটাতে আপনাকে অভ্যস্ত হতে হবে। যেহেতু পাকিস্তান জিতছিল তাই আপনি কে বা কোথা থেকে এসেছেন, তা নিয়ে কেউ ভাবেনি। একজন খেলোয়াড়ের তার নিজের ইচ্ছাতেই পারফর্মে উন্নতি করা উচিত এবং ক্রিকেটের নতুন ব্র্যান্ডের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া উচিত। এটা একেবারে সহজ হিসাব। আপনি তেমন পারফরম্যান্স দেখাতে না পারলে দল থেকে বাদ পড়বেন। কোনো বাজে ব্যবহার করবেন না, শুধু তাদের দলে নেবেন না।’

default-image

শোয়েব আখতারের ধারণা, পিসিবিতে অনেক কর্মকর্তা আছেন, দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে যাঁরা ধ্যানধারণায় অনেক পিছিয়ে। এসব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বললেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস, ‘আমার মনে হয় ধ্যানধারণায় পিছিয়ে থাকা যেসব লোকজন জাতীয় দলের সঙ্গে আছে তাদের বিরুদ্ধে পিসিবির একটা কিছু অবশ্যই করা উচিত। তারা মন–মানসিকতায় পিছিয়ে এবং সেটাকেই আরও সামনে দিকে নিয়ে যেতে চায়। কিন্তু এটা করা উচিত না। তারা ম্যানেজমেন্টের প্রতি একটা কঠিন বার্তা পাঠাতে পারে। তাদের বলা উচিত যে আমরা যে ক্রিকেট খেলতে চাই, সেটা এমন। তাদের প্রতিভা চেনা দরকার এবং নির্বাচকের সেই ভূমিকাটাও দেখানো দরকার। যারা দলে যোগ্য তাদেরই দলে ডেকে নিতে হবে। এটাই তাদের চাওয়া হওয়া উচিত।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন