বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দল নিয়ে কম কথা হয়নি। শোয়েব আখতার সুযোগ পেলেই দল নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। প্রশ্ন তুলেছেন শহীদ আফ্রিদিও। সাবেক অধিনায়ক মঈন খানের ছেলে আজম খানের দলে ঢোকার সিদ্ধান্ত নিয়ে ইঙ্গিতে প্রশ্ন তুলেছিলেন আফ্রিদি। এটাও বলেছিলেন, সমস্যা নেই, বিশ্বকাপের আগেই দলে পরিবর্তন আসবে। সে পরিবর্তন কাল এসেছে। বাকি দুজনের সঙ্গে আজম খানও বাদ পড়েছেন।

default-image

আজম খানের পরিবর্তে দলে ঢুকেছেন মাঝে কিছুদিন দলের বাইরে থাকা উইকেটরক্ষক সরফরাজ খান। আর এতেই বিরক্ত ইনজামাম। তাঁর ধারণা, পত্রপত্রিকায় সমালোচনা হলেই দল বদলে ফেলা ঠিক নয়। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন, ‘নির্বাচক কমিটি যদি পারফরম্যান্সের ওপর নির্ভর করে দল নির্বাচন করতে চায়, তবে বয়স ও অন্যান্য সবকিছু ভুলে যাওয়া উচিত। আপনি যদি সরফরাজকে খেলাবেনই-না, তখন তাকে বহন করছি কেন? গত দুই বছরে সে কয়টা টি-টোয়েন্টি খেলেছে? সাবেক অধিনায়ক সে। তাকে দলে নিয়ে না খেলানোর কোনো মানে হয় না।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন