বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক কিছুই হয়। সেসবে কান না দিলেও চলে। কিন্তু সুনীল গাভাস্কারের মতো কিংবদন্তি বিশ্লেষক যখন সিদ্ধান্তের মতো করে জানিয়ে দেন, ‘এ দুজন আর চলে না’, তখন একটু নড়েচড়ে বসতেই হয়।

default-image

গাভাস্কার সোজাসাপটা জানিয়ে দিয়েছেন, ভারতের পরবর্তী টেস্টের দল থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন পূজারা ও রাহানে। তাঁদের বর্তমান পারফরম্যান্সের কারণে দলে দুটি জায়গা খুলে যাচ্ছে অন্যদের জন্য, এমনই মনে হচ্ছে গাভাস্কারের। ‘আমার মনে হয় কেবল অজিঙ্কা রাহানেই নয়, চেতেশ্বর পূজারাও পরের সিরিজে ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছে। শ্রেয়াস আইয়ার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে ভালো করেছিল। আমি মনে করি, পরবর্তী সিরিজে দুটি জায়গা অন্যদের জন্য খুলে যাচ্ছে’—গাভাস্কারের বিশ্লেষণ।

রাহানে আর পূজারা—দুজনের হাতেই শট খুব সীমিত বলে মনে করেন অনেকে। ভারতীয় ইংরেজি দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া এক বিশ্লেষণে লিখেছে, ‘দুজনের হাতেই শট সীমিত। বোলাররা খুব সহজেই তাঁদের বিপক্ষে পরিকল্পনা সাজিয়ে তাঁদের রান করার রাস্তা বন্ধ করে দিতে পারেন। ব্যাপারটা অনেক দিন আগেই চিহ্নিত হওয়া সমস্যা, কিন্তু রাহানে ও পূজারা এ নিয়ে কোনো কাজই করেননি।’

ভারতীয় গণমাধ্যমের সমালোচনার মূল বিষয়টি হচ্ছে, এই দুজনের কারণে হনুমা বিহারি, শ্রেয়াস আইয়ারদের মতো ক্রিকেটাররা দলে নিয়মিত হতে পারছেন না। বছরের শুরুতে এই হনুমা বিহারি অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্ট মেজাজের স্বাক্ষর রেখেছিলেন। আইয়ার তো সুযোগ পেয়েই নিজেকে প্রমাণ করেছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, ভারতীয় ক্রিকেটে মাঝেমধ্যে অনেক অদ্ভুত ব্যাপার ঘটে। পূজারা আর রাহানেকে নিয়ে সমালোচনা করতে করতেই অনেকের চোখ বড় বড় হয়ে যায়, যখন তাঁরা দেখেন এই দুজন ভারতের হয়ে টেস্ট খেলেছেন যথাক্রমে ৯৫ ও ৮২টি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন