প্রান্তিক-আইচে লড়াই করছে বাংলাদেশের যুবারা

তৃতীয় দিন শেষে ৫১ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলছবি: বিসিবি

প্রথম দিনে কম রানে গুটিয়ে যাওয়ার পরও আফগানিস্তানকে চেপে ধরেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিন বিলাল সায়েদির সেঞ্চুরিতে ঘুরে দাঁড়ায় আফগানরা। সিলেটে একমাত্র যুব টেস্টের আজ তৃতীয় দিন শেষে আবার কিছুটা এগিয়ে আছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। দ্বিতীয় ইনিংসে ওপেনার প্রান্তিক নওরোজের ৭৬ রানের পর অধিনায়ক আইচ মোল্লার অপরাজিত ৪০ রানের ইনিংসে ভর করে এখন ৫১ রানে এগিয়ে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯, হাতে আছে ৬ উইকেট।

৮ উইকেটে ২২৬ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করা আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ আজ প্রথম ইনিংসে যোগ করেছে আরও ৫৫ রান। আইচ মোল্লাকে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে খেলতে গিয়ে লং-অনের সীমানায় ধরা পড়ার আগে সায়েদি করেছেন ১১৪ রান, আগের দিন যিনি অপরাজিত ছিলেন ১০১ রানে। শেষ দিকে বাংলাদেশের মূল ক্ষতিটা করেছেন ১০ নম্বরে নামা ফয়সাল খান আহমেদজাই। ৯৯ বলে ৩৯ রান করেছেন এ ডানহাতি, মেরেছেন তিনটি করে চার ও ছয়। শেষ পর্যন্ত তাঁকে ফিরিয়েছেন রিপন মণ্ডল। শেষ আফগান ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়েছেন ফয়সাল।

৭৬ রান করেছেন প্রান্তিক নওরোজ
ছবি: বিসিবি

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে ৭০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ইনিংসের সেরা বোলার অফ স্পিনার আশরাফুল ইসলামই। অফ স্পিনেই ৮ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন আইচ। একটি করে উইকেট পেয়েছেন আহসান হাবিব, রিপন মণ্ডল, মুশফিক হাসান ও মেহেরব হাসান।

১১৯ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে নামা বাংলাদেশের যুবারা শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছেন। প্রথম ওভারেই বিলাল সামির বলে এলবিডব্লু হয়েছেন ইফতেখার হোসেন। সে ওভারে শুরুতে একবার ইফতেখারের বিরুদ্ধে আফগানদের জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। তবে যেটাতে দিলেন, সেটায় অসন্তুষ্ট হলেন ইফতেখার। স্কোরবোর্ডে তখনো কোনো রান যোগ হয়নি।

দিন শেষে আইচ মোল্লার সঙ্গী আশরাফুল ইসলাম
ছবি: বিসিবি

তিনে নামা খালিদ হাসানকে নিয়ে শুরুর ধাক্কা অবশ্য সামাল দিয়েছেন প্রান্তিক। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে-পরে এ দুজনের ২য় উইকেট জুটিতে উঠেছে ৫৭ রান। জাহিদুল্লাহ সালিমির বলে খালিদ ২০ রান করে ক্যাচ দিয়ে ফেরার পর আইচের সঙ্গে প্রান্তিকের চতুর্থ উইকেট জুটিতে উঠেছে আরও ৯১ রান। চা-বিরতির আগে অবিচ্ছিন্ন ছিল প্রান্তিক ও আইচের জুটি।

এরপর ৪ রানের ব্যবধানে প্রান্তিক ও মাকসুদুর রহমানকে হারিয়ে ফেলে আবারও চাপে পড়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯। নাঙ্গেয়ালিয়া খারোতের নিচু হওয়া বলে পেছনে গিয়ে খেলতে গিয়ে এলবিডব্লু হয়েছেন প্রান্তিক। ১৬৬ বলে ৭ চারে ৭৬ রানের ইনিংস খেলে তিনি যখন ফিরছেন, বাংলাদেশের রান ৩ উইকেটে ১৪৮। এরপর খারোতের বলেই ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন ১৪ বল খেলেও কোনো রান করতে না পারা মাকসুদুর। দিনের বাকি অংশ অবশ্য আশরাফুল ইসলামকে নিয়ে নিরাপদে পার করেছেন আইচ। ৪ উইকেটে ১৭০ রান নিয়ে শেষ দিন শুরু করবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯।