বিজ্ঞাপন

বোলারদের এই র‌্যাঙ্কিংয়ে মিরাজের চেয়ে বড় লাফ দিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান। ৮ ধাপ উন্নতি ঘটিয়ে শীর্ষ দশে উঠে এসেছেন বাঁহাতি এ পেসার। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৩৪ রানে ৩ উইকেট নেওয়ার পর দ্বিতীয় ম্যাচে ১৬ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি।

র‌্যাঙ্কিংয়ের নয়ে উঠে এসেছেন মোস্তাফিজ। র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে বাংলাদেশের আর কেউ নেই। নতুন এই র‌্যাঙ্কিংয়ে মোস্তাফিজের রেটিং পয়েন্ট ৬৫২। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচে উঠে এসেছিলেন তিনি—র‌্যাঙ্কিংয়ে এটাই তাঁর সেরা সাফল্য।

default-image

৭৩৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ওয়ানডে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। মিরাজের চেয়ে ১৭ রেটিং পয়েন্ট পিছিয়ে তৃতীয় আফগানিস্তানের স্পিনার মুজিব উর রহমান।

এরপর যথাক্রমে নিউজিল্যান্ডের পেসার ম্যাট হেনরি (৬৯১ রেটিং পয়েন্ট), ভারতের পেসার যশপ্রীত বুমরা (৬৯০ রেটিং পয়েন্ট) ও দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার কাগিসো রাবাদা (৬৬৬ রেটিং পয়েন্ট)।

ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজের সেরা অবস্থানে উঠে এসেছেন মুশফিকুর রহিম। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচের এই সেরা খেলোয়াড় চার ধাপ উন্নতি ঘটিয়ে ১৪তম স্থানে উঠে এসেছেন।

default-image

প্রথম ওয়ানডেতে ৮৪ রানের পর কাল দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ১২৫ রান করেন তিনি। দুই ধাপ উন্নতি ঘটেছে মাহমুদউল্লাহর। ৩৮তম স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। ৮৬৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম।

৮৫৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ৮২৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তিনে ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মা।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন