বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তিনজনের এমন পারফরম্যান্স দেখে ম্যাচের শেষের দিকে অনেকের মধ্যেই একটি প্রশ্ন জেগেছিল—ম্যাচসেরা হবেন কে? শেষ পর্যন্ত নির্বাচকেরা ম্যাচসেরার জন্য বেছে নেন জাদেজাকেই।

টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে নামা ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি পাওয়ারপ্লের ৬টি ওভার বোলিং করিয়েছেন চার বোলারকে দিয়ে। জশপ্রীত বুমরা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, বরুণ চক্রবর্তী ও মোহাম্মদ শামির সেই ৬ ওভারে ২৭ রান নিয়েছে স্কটিশরা। উইকেট পড়েছে দুটি।

সপ্তম ওভারে কোহলি বল তুলে দেন জাদেজার হাতে। বল হাতে নিয়ে প্রথম ওভারেই দুটি উইকেট তুলে নেন জাদেজা। সেই ওভারে তিনি রান দিয়েছেন মাত্র ২টি। পরের ওভারে কোনো উইকেট না পেলেও রান দিয়েছেন মাত্র ৪টি।

জাদেজাকে কোহলি আবার বল দেন ১২তম ওভারে। দ্বিতীয় বলেই তুলে নেন উইকেট। এই ওভারে দিয়েছেন মাত্র ৩ রান। এরপর আরও একটি ওভার বোলিং করে কোনো উইকেট না পেলেও ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন জাদেজাই।

ম্যাচ শেষে মাঠে দেওয়া সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে জাদেজা বলেছেন, ‘এই পিচে বোলিংটা উপভোগ করেছি। বল ঘুরেছে। প্রথম উইকেটটি আমার জন্য ছিল বিশেষ। বাঁক নেওয়া বলে কোনো ব্যাটসম্যানকে আউট করতে পারাটা সত্যিই বিশেষ ব্যাপার।’

প্রথম দুই ম্যাচে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে ভারত। টানা দুই ম্যাচে তারা উপহার দিয়েছে দুর্দান্ত ক্রিকেট। ম্যাচ শেষে জাদেজা বলেছেন, ‘আমরা ভালো ক্রিকেট খেলতে চেয়েছি। আমরা নিজেদের সেরা খেলাটা দিতে চেয়েছি। এভাবে খেলতে পারলে কেউ আমাদের হারাতে পারবে না। টি–টোয়েন্টিতে আমাদের এভাবেই খেলতে হবে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন