বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মৌসুমে এটি সাসেক্সের দ্বিতীয় ম্যাচ। এর আগে নটিংহ্যামশায়ারের বিপক্ষে মৌসুমের প্রথম ম্যাচে পূজারা ও রিজওয়ানের কাউকেই পায়নি সাসেক্স। গতকাল ডার্বিশায়ারের ম্যাচের আগে সাসেক্সের জার্সিতে একসঙ্গে পূজারা ও রিজওয়ানের ছবি দিয়ে সাসেক্সের টুইট, ‘এই দুজনের অভিষেকের দিন!’

সাসেক্সকে দিয়ে এবারই প্রথম কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের স্বাদ পাচ্ছেন রিজওয়ান। পূজারার অবশ্য সাসেক্সে এবারই প্রথম হলেও কাউন্টিতে এটি তাঁর পঞ্চম মৌসুম। এর আগে ডার্বিশায়ার ও নটিংহ্যামশায়ারে খেলা পূজারা ইয়র্কশায়ারে খেলেছেন দুই মৌসুম।

তবে দুজনের কাউন্টিতে খেলা তো আর বড় ব্যাপার নয়, কাল বড় হয়ে উঠেছে সাসেক্সের টুইটারে ছবিটি প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভারত ও পাকিস্তানের ক্রিকেটপ্রেমীদের আবেগের বহিঃপ্রকাশ।

প্রিষ্ণা আজাল নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘কী দারুণ একটা ছবি! আমার চোখে দিনের সেরা ছবি এটিই। দুজনকে জুটি গড়তে, একসঙ্গে রান করতে দেখতে তর সইছে না।’

হুজাইবা আফতাব নামের আরেকজন সাসেক্সের ছবিটি রিটুইট করে লিখেছেন, ‘এই দুজনকে একই দলে খেলতে দেখা একটা দারুণ প্রাপ্তি!’ উদিত নামের আরেকজন চেতেশ্বর ও রিজওয়ানের নাম মিলিয়ে একটা নাম বের করে এক শব্দে টুইট করেছেন সেটি, ‘চেজোয়ান!’ নামটার কোনো মানে দাঁড়াল কি না, তা কে ভাবতে যায়!

আর সাসেক্সের ছবির নিচে মন্তব্যের ঘরে মুশাহিদ হুসেইনের টুইটই হয়তো দুনিয়ার অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর মনের কথা, ‘আমি চাই, ভারত ও পাকিস্তান আবার দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলুক। কী দারুণ একটা সিরিজ হবে সেটি! চেতেশ্বর ও রিজওয়ানকে শুভকামনা।’

পূজারা ও রিজওয়ান অবশ্য ক্যারিয়ারের দুই প্রান্তে থেকেই সাসেক্সের হয়ে খেলতে গেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকে বাদ পড়ার পর পূজারা ভারতের টেস্ট দলে ফেরার পথ খুঁজছেন, আর রিজওয়ান এখন বিশ্বসেরা উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানের আলোচনায় থাকেন সব সময়।

তবে সে নিয়ে সাসেক্সের প্রধান কোচ ইয়ান সালিসবুরির ভাবনা নেই। তিনি দুজনকে একসঙ্গে পেয়েই খুশি। ম্যাচের আগে বললেন, ‘রিজওয়ান ও পূজারার মানের দুজনকে একসঙ্গে দলে টানতে পেরে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। সেটি শুধু তাঁরা বিশ্বমানের ক্রিকেটার বলে, তাঁদের কারণে মাঠে দলের লাভ হবে বলেই নয়, ড্রেসিংরুমে এ দুজনকে পাওয়া ছেলেদের জন্যও শুধু ইতিবাচক কিছুই হতে পারে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন