বিজ্ঞাপন
পাকিস্তানের বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজে চামু চিবাবা ছিলেন জিম্বাবুয়ে দলের অধিনায়ক। অথচ সেই চিবাবাই নেই বাংলাদেশ সিরিজের ওয়ানডে দলে।

দল ঘোষণা করতে কেন এত দেরি, সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে জানা গেল কারণটা টিমিসেন মারুমা। হারারে থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ৩৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানকে দলে রাখা না রাখা নিয়েই সিদ্ধান্ত নিতেই কালক্ষেপণ করেছেন জিম্বাবুয়ের নির্বাচকেরা।

মারুমা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন ২০০৭ সাল থেকে। তিন সংস্করণে ৩৮ ম্যাচ খেললেও একটি ফিফটিও নেই মারুমার। কিন্তু নির্বাচক প্রসপার উতসেয়া ও জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান হ্যামিল্টন মাসাকাদজা বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে অপরাজিত ৫৯ রান করায় মারুমাকে দলে রাখতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাফল্য না থাকায় মারুমাকে আবার দলে চাইছিলেন না জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডের শীর্ষ কর্তারা। এ নিয়ে দুই পক্ষের দেনদরবারে দল ঘোষণায় দেরি। শেষ পর্যন্ত মারুমাকে দলে রেখেই ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেন মাসাকাদজারা।

default-image

চমক আছে সেই ১৬ সদস্যের দলেও। পাকিস্তানের বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজে চামু চিবাবা ছিলেন জিম্বাবুয়ে দলের অধিনায়ক। অথচ সেই চিবাবাই নেই বাংলাদেশ সিরিজের ওয়ানডে দলে।

হারারেতে গত সপ্তাহের একমাত্র টেস্টের পর ওয়ানডেতেও ব্রেন্ডন টেলরকে অধিনায়ক করে দল ঘোষণা করেছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট। ওয়ানডে দলে ডাক পেয়েছেন তিন নতুন মুখ তাদিওয়ানাশে মারুমানি, ডিওন মায়ার্স ও মিল্টন শুম্বা।

পরিবারে করোনা ধরা পড়ায় টেস্ট দল থেকে ছিটকে পড়া দুই অভিজ্ঞ শন উইলিয়ামস ও ক্রেগ আরভিনকে ছাড়াই ওয়ানডে দল সাজাতে হয়েছে জিম্বাবুয়েকে। যদিও এই সপ্তাহে দুজনই করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল পেয়েছেন। তবু জাতীয় দলের জৈব সুরক্ষাবলয়ে প্রবেশের পূর্বে দুজনকেই আরও পরীক্ষা–নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হবে।

default-image

তবে অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সিকান্দার রাজা দলে ফেরায় স্বস্তি পেতে পারে স্বাগতিকেরা। গত মার্চে কনুইয়ের হাড়ে সংক্রমণ ধরা পড়ে। সেখান থেকে সুস্থ হয়ে দলে ফিরেছেন তিনি।

আরেক অভিজ্ঞ পেসার টেন্ডারি চাতারাকেও এই সিরিজে পাচ্ছে জিম্বাবুয়ে। চোটের কারণে গত নভেম্বরের পাকিস্তান সফর থেকে ছিটকে পড়েছিলেন তিনি। সুস্থ হয়ে বাংলাদেশ সিরিজ দিয়ে ক্রিকেটে ফিরছেন।

চোট থেকে ফেরাদের দলে আছেন রায়ান বার্লও। ডান হাঁটুর চোট থেকে সুস্থ হয়েছেন তিনি। এ ছাড়া ২০১৬ সালে সর্বশেষ ওয়ানডে খেলা লুক জঙ্গুয়ে দলে ফিরেছেন।

জিম্বাবুয়ে ওয়ানডে দল

ব্রেন্ডন টেলর (অধিনায়ক), রায়ান বার্ল, রেজিস চাকাবা, টেন্ডাই চাতারা, লুক জঙ্গুয়ে, তিনাশে কামুনহুকামুয়ে, ওয়েসলি মাধেভারে, টিমিসেন মারুমা, তাদিওয়ানশে মারুমানি, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, ব্লেসিং মুজারাবানি, ডিওন মায়ার্স, রিচার্ড এনগারাভা, সিকান্দার রাজা ও মিল্টন শুম্বা।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন