default-image

বহু দিন পর আইপিএলে দেখা যাবে মোস্তাফিজুর রহমানকে। ২০১৮ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস তাঁকে নেয়। গত দুই বছর আইপিএলে দেখা যায়নি তাঁকে। এবারের আইপিএলের নিলামে আজ বাংলাদেশি বাঁহাতি পেসারকে ভিত্তিমূল্য ১ কোটি রুপিতে দলে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস।

নিজেদের জার্সিতে মোস্তাফিজের ছবি এখনো জোগাড় করতে পারেনি রাজস্থান। ফটোশপ করে মোস্তাফিজের জার্সিটা রাজস্থান রয়্যালসের করে নিতে পারত। কিন্তু টুইটারে একের পর এক মজার পোস্ট করতে ব্যস্ত রাজস্থানের টুইটার অ্যাকাউন্টের ‘অ্যাডমিন’ ইচ্ছে করেই কাঁচা হাতের এডিট করে মোস্তাফিজের গায়ে বসিয়ে দিলেন ফ্র্যাঞ্চাইজির জার্সি। সে সঙ্গে লিখে দিয়েছেন, ‘তাঁকে আমাদের জার্সি গায়ে দিয়ে আসল ছবি দিতে বলছি, তার আগে ট্রেলার দেখুন।’

মোস্তাফিজের সেরাটা পাওয়ার জন্য রাজস্থান কতটা আগ্রহী সেটার ট্রেলার অবশ্য ফেসবুকে দেখা গেল। মোস্তাফিজের জন্য যে বাংলা বলাটাও শিখছে রাজস্থান রয়্যালস!

বিজ্ঞাপন

২০১৬ আইপিএলে মোস্তাফিজ আলো ছড়িয়েছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের জার্সিতে, সে সুবাদে হায়দরাবাদে বাংলা ভাষার প্রচার ও প্রসার বেড়েছিল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার কয়েক দিন আগেই আবির্ভূত মোস্তাফিজ বাংলাতেই খুব একটা কথা বলতে রাজি ছিলেন না। এর মধ্যে আইপিএলের মতো মঞ্চে খেলতে চলে যান।

ইংরেজিতে খুব একটা পারঙ্গম নন। সানরাইজার্স হায়দরাবাদ তাঁর কাটারের সর্বোচ্চ পেতে তখন উন্মুখ। মাঠে মোস্তাফিজের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার উপায় খুঁজছিলেন। প্রথমে ইশারা-ইঙ্গিতে কাজ চালিয়ে নিচ্ছিলেন ওয়ার্নার।
দলের সেরা বোলারের সেরাটা বের করে নিতে ওয়ার্নার নতুন প্রকল্প হাতে নিলেন। তিনি নিজেই বাংলা শেখার চেষ্টা করলেন। ওয়ার্নার ও কোচ টম মুডির বাংলা শেখার চেষ্টাটা বেশ আলোড়ন ফেলেছিল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ দুজন বাংলায় নিজেদের দক্ষতাও পরখ করেছিলেন তখন। শুধু মোস্তাফিজের কারণে হায়দরাবাদের সমর্থকেরাও বাংলা শেখা শুরু করেছিলেন।

মোস্তাফিজের বাংলা ভাষা প্রচার এখানেই শেষ হয়নি। সফল আইপিএল শেষে ইংল্যান্ডে গিয়েছিলেন এই পেসার। সাসেক্স পর্ব অবশ্য মাত্র দুই ম্যাচে শেষ হয়েছিল। ওটাই যথেষ্ট ছিল। মোস্তাফিজকে ঘিরে তুমুল আগ্রহ দেখে সাসেক্স সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বাংলায় পোস্ট করেছিল।

আইপিএলে মোস্তাফিজের নতুন দল রাজস্থানও বাংলা শেখার চেষ্টা শুরু করে দিয়েছে। আইপিএলের এখনো দেড় মাসের বেশি বাকি। কিন্তু মোস্তাফিজের দলভুক্তির কথা জানার পরই ফেসবুকে বাংলায় পোস্ট করেছে তারা। পোস্টে মোস্তাফিজের একটি ছবি দিয়ে তারা লিখেছে, ‘মোস্তাফিজুর, সব ভালো তো?’ বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা সবাই সে পোস্ট লুফে নিয়েছেন।

যদিও তারকায় ভরা দলটিতে মোস্তাফিজ সুযোগ পাবেন কি না, এ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছেন অনেকেই। বেন স্টোকস, জস বাটলার ও জফরা আর্চারের মতো বিদেশি খেলোয়াড়েরা আগেই ছিলেন দলটিতে। এবার আইপিএলের নিলামের রেকর্ড ভেঙে ক্রিস মরিসকেও কিনে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন