বিজ্ঞাপন

ঘটনাটা আবাহনী ইনিংসের পঞ্চম ওভারে। মুশফিকুর রহিমের বিপক্ষে নিজের বোলিংয়ে এলবিডব্লিউর আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। সঙ্গে সঙ্গেই লাথি মেরে স্টাম্প ভাঙেন সাকিব। পরের ওভারেই শুভাগত হোমের বোলিংয়ের সময় বৃষ্টি নামলে আম্পায়ার খেলা বন্ধ করার ঘোষণা দিলে সাকিব আবার নিজের হাতে স্টাম্প উপড়ে ফেলেন।

default-image

ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তাঁর। পরে দুই দলের ক্রিকেটাররা এসে দুজনকে দুই ড্রেসিংরুমে টেনে নেন।

এই ঘটনার আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে মোহামেডান নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে স্কোরবোর্ডে তোলে ১৪৫ রান। সর্বোচ্চ ৩৭ রান (২৭ বলে) করেন সাকিবই। মাহমুদুল হাসান ২২ বলে ৩০ করে অপরাজিত থাকেন। আবাহনীর পক্ষে এ কে এস স্বাধীন ২৪ রানে ৩ উইকেট নেন, ১৭ রানে ২ উইকেট নেনে তানজীম হাসান সাকিব।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ের মুখেই ছিল আবাহনী। ২.৩ ওভারে ৯ রানে ৩ উইকেট হারায় তারা। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে উইকেটে ছিলেন নাজমুল হোসেন ও মুশফিকুর রহিম। আবাহনীর সংগ্রহ ছিল ৫.৫ ওভারে ৩ উইকেটে ৩১।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন