সেঞ্চুরির পর শাই হোপের সঙ্গে এভিন লুইসের উদযাপন
সেঞ্চুরির পর শাই হোপের সঙ্গে এভিন লুইসের উদযাপনছবি : এএফপি

অ্যান্টিগায় কাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৫ উইকেটে জিতেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ২৭৩ রান তুলেছিল শ্রীলঙ্কা। তাড়া করতে নেমে ২ বল হাতে রেখে জয় তুলে নেয় কাইরন পোলার্ডের দল। এর মধ্য দিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখে ওয়ানডে সিরিজ জিতল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

২৭৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ১৯২ রান তোলেন এভিন লুইস ও শাই হোপ। ৩৭.২ ওভারে তাঁদের এ জুটি বেশ খানিকটা পথ এগিয়ে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। ৪ ছক্কা ও ৮ চারে ১২১ বলে ১০৩ রান করে লুইস আউট হওয়ার পর খানিকটা বিপদে পড়েছিল সফরকারী দল। পরের ওভারে শাই হোপও (৮৪) ফিরে যান। তাঁকে তুলে নেন দুষ্মন্ত পেরেরা। লক্ষ্মণ সান্দাকানের স্পিনে স্টাম্পিংয়ের শিকার হন লুইস।

বিজ্ঞাপন

দুই ওভার পর ড্যারেন ব্রাভোকেও তুলে নিয়ে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দেয় শ্রীলঙ্কা। জয়ের জন্য শেষ ৫ ওভারে ৪৬ রান দরকার ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ৪৬ থেকে ৪৮তম ওভারের মধ্যে পোলার্ড ও ফাবিয়েন অ্যালেন আউট হলেও এক প্রান্ত থেকে রানের চাকা সচল রাখেন নিকোলাস পুরান। ৪৬তম ওভার থেকে হাতখুলে ব্যাট করা শুরু করেন এই বাঁহাতি। এর মধ্য দিয়ে নুয়ান প্রদীপের করা ৪৮তম ওভারে এসেছে ১৮ রান। জয়ের জন্য শেষ ওভারে ৯ রান দরকার ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। লঙ্কান পেসার প্রদীপের করা শেষ ওভারের প্রথম বলে পুরান রান নিতে পারেননি। কিন্তু পরের দুই বলে দুটো চার মেরে জয়ের পাল্লা ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে ভারী করেন পুরান। পরের বলেই জয় তুলে নেওয়া পুরান ৩৮ বলে ৩৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

এর আগে যেবার ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শেষ ওভারে ৯ বা তার বেশি রান তাড়া করে জিতেছিল, সেবারও প্রতিপক্ষ ছিল এই শ্রীলঙ্কা। তাও সেই ২০০৮ সালের কথা। এই ঝটকায় ১৩ বছর আগের স্মৃতি ফিরে এল যেন এই ম্যাচের মাধ্যমে। সে ম্যাচে ২৩৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গতকালের আগে লঙ্কানদের বিপক্ষে ক্যারিবীয়দের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ওটাই ছিল।

default-image

২০১৪ সালের পর এই প্রথমবারের মতো টানা দুই ওয়ানডে জয়ের স্বাদ পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এদিকে শ্রীলঙ্কার দুশ্চিন্তা থাকবে বোলিং নিয়ে। ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানদের ওপর কেউ সেভাবে প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি। এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দানুষ্কা গুনাতিলকার ৯৬ রানে ভর করে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন দেখেছে শ্রীলঙ্কা। কিন্তু মিডলঅর্ডারে দিনেশ চান্দিমাল (৭১) ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতে পারেননি।

শেষ দিকে হাসারঙ্গা সিলভার ৩১ বলে ৪৭ রানে লড়াকু সংগ্রহ পায় শ্রীলঙ্কা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৪২ রানে ২ উইকেট নেন আলজারি জোসেফ। কাল সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন