বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কাল গুজরাটকে জেতানোর পর নিজের ব্যাটিং নিয়ে কথা বললেন রশিদ খান, ‘আমি শুধু নিজের খেলাটা খেলার চেষ্টা করেছি। নিজের ব্যাটিংয়ের ওপর আস্থা ছিল, যেটা নিয়ে দুই বছর কাজ করছি।’ শেষ ওভারে যখন ২২ রান দরকার, তখনকার পরিকল্পনা নিয়েও কথা বলেছেন এই তারকা, ‘তেওয়াতিয়াকে বলেছি, নিজেদের সেরা বোলার ফার্গুসনকে ব্যবহার করেও শেষ ওভারে আমরা ২৫ রান দিয়েছি। তাই শুধু আত্মবিশ্বাসটা রাখতে হবে। একটা ডেলিভারি মারতে না পারলে দুশ্চিন্তা করা যাবে না। ঠান্ডা মাথায় খেলাটা শেষ করতে হবে কিংবা যতটা কাছাকাছি সম্ভব যেতে হবে। তাতে রানরেটে অন্তত সুবিধাজনক জায়গায় থাকব। সৌভাগ্যক্রমে আমরা চারটি ছক্কা মারতে পেরেছি।’ শেষ পর্যন্ত রশিদের ১১ বলে ৩১ রানের অপরাজিত ইনিংসে জিতেছে গুজরাট।

মজার বিষয়, সানরাইজার্সের ইনিংসে শেষ ওভারে চার ছক্কা ও ১ রান মিলিয়ে মোট ২৫ রান দেন নিউজিল্যান্ডের পেসার লকি ফার্গুসন। গুজরাটও নিজেদের ইনিংসে ২২ রান তাড়া করতে নেমে ২৫ রান তুলেছে চার ছক্কা ও ১ রান নিয়ে!

default-image

তবে কাল বল হাতে ভালো করতে পারেননি রশিদ। ৪ ওভারে দিয়েছেন ৪৫ রান। আইপিএলে এই প্রথমবারের মতো ৪ ওভারের কোটায় ওভারপ্রতি গড়ে ১০–এর বেশি রান দিয়ে উইকেটশূন্য থাকলেন এই লেগ স্পিনার। অর্থাৎ, কাল বোলার ছাপিয়ে রশিদের ব্যাটসম্যান-সত্তাই গুজরাটের জয়ে ‘নিউক্লিয়াস’। টি-টোয়েন্টিতে যে ক্রিকেটারের ব্যাট হাতে স্ট্রাইকরেট ১৪৬.৯৪ আর বোলিংয়ে স্ট্রাইকরেট ১৬.৫, তাঁকে আর যা–ই হোক, অলরাউন্ডার না বলাটা ঠিক শোভন দেখায় না।

তাহলে, অলরাউন্ডার রশিদ খান, নাকি!

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন