বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হারারেতে টস জিতলে ফিল্ডিং নিতেন—এমন জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম। তাঁর সে আশা পূর্ণ হয়নি, টসে হেরে ব্যাটিংই নিতে হয় বাংলাদেশকে। এরপর ওপেন করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশিবার শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ডটা অনিচ্ছা সত্ত্বেও নিজের করে নিতে হয় তামিমকে।

এ নিয়ে ৩৪তম বার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শূন্য রানে আউট হলেন তামিম। বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি শূন্যের তালিকায় মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ছাড়িয়ে গেলেন তিনি। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে ব্লেসিং মুজারাবানির লাফিয়ে ওঠা বলে ব্যাট চালিয়ে কট-বিহাইন্ড হয়েছেন তিনি। ৭ বল খেলে রানের খাতা খুলতে পারেননি।

default-image

মাশরাফি তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৩৩ বার কোনো রান না করেই আউট হয়েছিলেন। তালিকায় এর পর আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল, ক্যারিয়ারে সব মিলিয়ে ৩১ বার ‘ডাক’ মেরেছেন তিনি। চারে থাকা মুশফিকুর রহিমের শূন্যের সংখ্যা ২৬, হাবিবুল বাশারের ক্যারিয়ারে ‘ডাক’—২৫টি।

তামিম এ নিয়ে ওয়ানডেতে শূন্য রানে ফিরলেন ১৯তম বার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তো বটেই, বাংলাদেশের হয়ে এ সংস্করণেও রেকর্ডটা নিজের করে নিলেন তিনি।

তালিকায় এর আগে শীর্ষে ছিলেন হাবিবুল, ওয়ানডেতে তিনি কোনো রান না করে ফিরেছেন ১৮ বার।

default-image

ওয়ানডেতে শীর্ষে থাকলেও টেস্টে অবশ্য বাংলাদেশের হয়ে শূন্যের তালিকা দেখে খুশি হবেন তামিম। এখন পর্যন্ত দীর্ঘ সংস্করণে কোনো রান না করে তিনি আউট হয়েছেন ৯ বার। বাংলাদেশের হয়ে এ তালিকায় সবার ওপরে আশরাফুল, তাঁর শূন্য রানে আউট হওয়ার সংখ্যা ১৬।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব সংস্করণ মিলিয়ে শূন্যের বিশ্ব রেকর্ডটি মুত্তিয়া মুরালিধরনের। শ্রীলঙ্কার স্পিন কিংবদন্তি শূন্যতেই ফিরেছেন ৫৯ বার। টেস্টে এ রেকর্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার ও বাংলাদেশের সাবেক বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের (৪৩)।

ওয়ানডেতে ৩৪ বার শূন্যতে আউট হয়ে শীর্ষে সনাৎ জয়াসুরিয়ার। টি-টোয়েন্টিতে ১০ বার কোনো রান না করেই আউট হয়েছেন তিলকরত্নে দিলশান, সাবেক শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যান ক্রিকেটের সবচেয়ে নতুন সংস্করণে সবার ওপরে শূন্যের অনাকাঙ্ক্ষিত রেকর্ডের তালিকায়।

অবশ্য ওপেনার হিসেবে শূন্যের তালিকায় তামিম আছেন তিনে। ৪৫ বার শূন্যতে আউট হয়ে সবার ওপরে এখানে জয়াসুরিয়া। এরপর আছেন ক্রিস গেইল। তিন সংস্করণ মিলিয়ে ৪০ বার কোনো রান না করেই আউট হয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যান।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন