বিজ্ঞাপন

ব্যাটিংয়ের সময়য় সাইফউদ্দিনকে বাউন্সারে পরাস্ত করেন শ্রীলঙ্কান ফাস্ট বোলার দুশ্মন্ত চামিরা। সেই বলেই আবার রান আউট হন তিনি। রান আউট থেকে বাঁচার চেষ্টায় লাফ দিতে গিয়েও আঘাত পান তিনি। শেষ পর্যন্ত ৩০ বল খেলে ১১ রান করেন তিনি।

সাইফের ছোট্ট ইনিংসটি বাংলাদেশের সংগ্রহে ভূমিকা রেখেছে। সেঞ্চুরিয়ান মুশফিকুর রহিম আর সাইফউদ্দিন মিলে অষ্টম উইকেট জুটিতে ৫১ বলে ৪৮ রান যোগ করেছিলেন। প্রথম ওয়ানডেতেও তাঁর শেষ দিকের ঝোড়ো ইনিংসটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। ৯ বলে ১৩ রান করেছিলেন দুটি বাউন্ডারিতে। আফিফ হোসেনের সঙ্গে তার জুটিতে এসেছিল ১৭ বলে ২৭ রান।

বোলিংয়েও ম্যাচের বাঁক বদলানো দুটি উইকেট নিয়েছিলেন সাইফউদ্দিন। ৬০ বলে ৭৪ রান করে হুমকি হয়ে ওঠা ভানিন্দু হাসারাঙ্গাকে ফেরান তিনি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন