বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ খেলা শেষে সাংবাদিকদের নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘সাকিব আমাকে বলেছে, আমাদের এবার ভালো সুযোগ আছে। সাকিবের মতো খেলোয়াড় যখন বলে এবার ভালো সুযোগ আছে, তার মানে দলের ওপরও তার আত্মবিশ্বাস আছে। যেটা দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

default-image

বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ টানা তিনটি সিরিজ জিতেছে। প্রথমে জিম্বাবুয়ে। এরপর ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়। সব মিলিয়ে টানা ১৩ ম্যাচে ৯টিই জিতেছে বাংলাদেশ। তবে বিশ্বকাপের জন্য যে ধরনের প্রস্তুতি দরকার, সেটি নাকি হয়নি বাংলাদেশ দলের। সেটার কারণ নাকি করোনাভাইরাস।

নাজমুল হাসান এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘টি-টোয়েন্টিতে যেভাবে খেলার কথা ছিল, সেভাবে হয়নি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের যে পরিকল্পনা, তা ঠিকঠাক করতে পারিনি। দেড়টা বছর আসলে আমাদের যা যা পরিকল্পনা মাথায় ছিল, সত্যি বলতে সেটা আমরা করতে পারিনি। কিন্তু অনেক দেশ করতে পেরেছে। একটা সমস্যা ছিল আমাদের দেশে কাউকে আনা কিংবা অন্য দেশে গিয়ে আমাদের খেলা। এগুলো নিয়ে একটু সমস্যা ছিল। প্রথম এক বছর তো গেছে শঙ্কায়, খেলাধুলা নিয়ে কিছুই ছিল না। একটা লম্বা সময় বিরতি ছিল। আমি বলব না যে প্রস্তুতি খুব একটা ভালো হয়েছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী হয়নি।’

তবে টানা সিরিজ জয়ে বাংলাদেশ দলের টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে দশ থেকে উঠে এসেছে ছয় নম্বরে, সেটিতে বোর্ড প্রধান সন্তুষ্ট। তাঁর আশা, র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আটে থাকতে পারলে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সরাসরি খেলার সুযোগ পাবে বাংলাদেশ দল।

default-image

‘একটা জিনিস অস্বীকার করার উপায় নেই, কিছুদিন আগেও আমরা একদম তলানিতে ছিলাম টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে। সে জন্য আমরা একটু পরীক্ষা–নিরীক্ষা করারও চেষ্টা করেছি। আমরা তরুণ ছেলেদের দিয়ে চেষ্টা করছি। এখন পর্যন্ত এটা কিন্তু আমাদের পরীক্ষা–নিরীক্ষার পর্যায়েই।’ বলেছেন নাজমুল হাসান।

যদিও র‍্যাঙ্কিং এগিয়ে ২০২২ বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ নেই। আগামী বিশ্বকাপে জায়গা করতে হলে এবারের বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড পার করলেই চলবে। কারণ, এবারের সুপার টুয়েলভে খেলা ১২টি দল আগামী বিশ্বকাপে সরাসরি সুযোগ পাবে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন