বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এডিস মশা কামড়ালে কী হয়, সেটা সবারই জানা। হ্যাঁ, হাফিজের ডেঙ্গু ধরা পড়েছে। গতকাল মঙ্গলবার এমন খবরই দিয়েছে পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে হাফিজের প্রস্তুতিতে প্রথম বাধা হয়ে আসে পেটের পীড়া। যার জন্য তিনি পাকিস্তানের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি কাপের প্রথম পর্বে খেলতে পারেননি। সেই সমস্যা কাটিয়ে উঠে দ্বিতীয় পর্বের পুরোটাই খেলার আশা করেছিলেন। কিন্তু এবার তাঁর জন্য বাধা হয়ে এসেছে ডেঙ্গু।

হাফিজের ডেঙ্গু ধরা পড়েছে লাহোরে। ৬ অক্টোবর সেখানেই শুরু হওয়ার কথা পাকিস্তানের জাতীয় টি-টোয়েন্টি কাপের দ্বিতীয় পর্ব। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমের খবর, হাফিজের রক্তের প্লাটিলেট অনেক কমে গেছে। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসে জাতীয় টি-টোয়েন্টি কাপে খেলতে পারলেও হাফিজ কেমন করতে পারবেন, সে প্রশ্ন থেকেই যায়।

এর ওপর তাঁকে নিয়ে রমিজের মনোভাব কী, সেটাও একটা বিষয়। হাফিজকে নিয়ে রমিজের মনোভাব নেতিবাচক থাকলে তাঁকে বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ দেওয়ার ক্ষেত্রে ডেঙ্গুর অসুস্থতার বিষয়টি কারণ হিসেবে দেখাতেই পারে পিসিবি! পাকিস্তান তাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে ২৪ অক্টোবর, প্রতিপক্ষ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত।

default-image

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে, হাফিজের সঙ্গে রমিজের সমস্যাটা কী! রমিজ এর আগে বিশেষজ্ঞ হিসেবে হাফিজের অনেক সমালোচনা করেছেন। বছরখানেক আগে হাফিজ অবসর নিলে পাকিস্তান দল উপকৃত হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এর জবাবটা হাফিজ দিয়েছিলেন একটু চাঁছাছোলাভাবে। বলেছিলেন, রমিজের ক্রিকেটজ্ঞান ও জানাশোনা নিয়ে তাঁর সংশয় আছে। তাঁর ১২ বছরের ছেলেও রমিজের চেয়ে ক্রিকেট ভালো বোঝে বলে মন্তব্য করেছিলেন হাফিজ!

তবে রমিজ পাকিস্তানের সভাপতি হওয়ার পর অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছিলেন হাফিজ। দেখা যাক, সেই টুইট তাঁর বিশ্বকাপ-স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে কোনো সাহায্য করে কি না! এর আগে অবশ্য হাফিজকে ডেঙ্গু থেকে সেরে উঠে ছন্দেও ফিরতে হবে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন