default-image

লর্ডসে সেদিন ইংল্যান্ডের ৩৪৪ রান তাড়া করতে নেমে ৩০১ বলে ২০টি চারে ১৩১ করেছিলেন সৌরভ। রাহুল ফিরেছিলেন ৯৫ রানে। তাঁর ইনিংসটি ছিল ২৬৭ বলের। বাউন্ডারি মেরেছিলেন মাত্র ৪টি। অভিষেক ইনিংসে সৌরভ-দ্রাবিড়, দুজনই নিজেদের ধরনটা সবাইকে জানিয়ে রেখেছিলেন। সৌরভ-রাহুল রূপকথাটাও লেখা হয়ে গিয়েছিল সেদিনই।

ট্রেন্ট ব্রিজে পরের টেস্টে সৌরভ খেলেছিলেন ১৩৬ রানের ইনিংস। দ্রাবিড় ট্রেন্ট ব্রিজেও শতক হাতছাড়া করেছিলেন ৮৪ রানে ফিরে। সেদিন ১৭৭ বল খেলে ১২টি চারে ৮৪ করেছিলেন দ্রাবিড়। সৌরভ ১৩৬ রানের ইনিংসটি খেলেছিলেন ২৬৮ বলে। চার মেরেছিলেন ১৭টি, ছক্কা দুটি। সৌরভের এর পরের দুটি ইনিংস যথাক্রমে ৪৮ ও ৬৬ রানের—‘কোটার খেলোয়াড়’কে আর এ ব্যাপার নিয়ে কথা শোনানোর কোনো অবস্থাই ছিল না সমালোচকদের। ক্যারিয়ার শেষ করেছেন ২০০৮ সালে ১১৩ টেস্ট খেলে। ৭২১২ রান করেছেন ৪২.১৭ গড়ে; শতরান করেছেন ১৬টি, অর্ধশতক ৩৫টি। দ্রাবিড় অবশ্য টেস্ট খেলায় সৌরভের চেয়ে অনেক এগিয়ে। ১৬৪ টেস্ট খেলে থেমেছেন তিনি। গড়ে তিনি এগিয়ে আরও—৫২.৩১। ৩৬টি শতরান, ৬৩টি পঞ্চাশ, রান ১৩২৮৮—এই পরিসংখ্যান দেখতে দেখতে ১৯৯৬ সালের ২০ জুন লর্ডসে একটা ফ্ল্যাশব্যাক হতেই পারে—সেদিন যাঁরা মাঠে ছিলেন, দুই গ্রেটের জন্মমুহূর্তের সাক্ষী তাঁরা, এমন সৌভাগ্য কয়জনেরই–বা হয়।

default-image

দুই গ্রেটের অভিষেক মঞ্চ লর্ডস আজ একটা টুইট করেছে। বিশ্ব ক্রিকেটের দুই কিংবদন্তির অভিষেক মুহূর্তের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তাদের ক্যাপশন—‘বিশ্ব ক্রিকেটের দুই সেরা সৌরভ গাঙ্গুলী ও রাহুল দ্রাবিড়ের টেস্ট অভিষেকটা হয়েছিল ১৯৯৬ সালের আজকের দিনে।’

সৌরভ-রাহুল-কোহলির টেস্ট অভিষেকের তারিখ—২০ জুন ভারতীয় ক্রিকেট বিশেষভাবে উদ্‌যাপন করলেই পারে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন