default-image

কীভাবে! গাভাস্কার মনে করেন, কোহলির সঙ্গে তিনি যদি ২০ মিনিট কথা বলার সুযোগ পেতেন, তাহলেই কোহলিকে বাজে ফর্ম থেকে বেরিয়ে আসার উপায়টা বাতলে দিতে পারতেন। গাভাস্কার বলেছেন, কোহলির বাজে ফর্মের রোগটা তিনি সারিয়ে তুলতে পারবেন। তিনি কোহলির সঙ্গে কথা বলতে চান, তাঁকে কয়েকটি বিষয়ে দেখিয়ে দিতে চান চোখে আঙুল দিয়ে।

ইন্ডিয়া টুডেকে গাভাস্কার বলেছেন, ‘আমি যদি ওর সঙ্গে ২০ মিনিট থাকতাম, তাহলে আমি তাকে বলতে পারতাম কী করতে হবে। এটি তাকে সাহায্য করতে পারে, আমি বলছি না এটি তাকে সাহায্য করবেই, তবে এটি বিশেষত সেই অফ স্টাম্পের বাইরের বল খেলার ক্ষেত্রে হতে পারে।’

গাভাস্কার আরও বলেছেন, ‘একজন ওপেনার হিসেবে সেই লাইন নিয়েই সমস্যা রয়েছে এবং আরও কিছু বিষয় রয়েছে। যদি আমি তার সঙ্গে কথা বলার ২০ মিনিট সময় পাই, তাহলে আমি তাকে এসব বলতে পারি।’

ইংল্যান্ড সফরে এজবাস্টন টেস্টে দুই ইনিংস মিলিয়ে কোহলির রান ৩১। টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুই ম্যাচে ১২, ওয়ানডেতে দুই ম্যাচ খেলে ৩৩—কোহলির আসলেই গাভাস্কারের সঙ্গে একটু বসা উচিত।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন