শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম ‘নিউজওয়্যার’ আজ সকালে জানিয়েছে, এই পেসার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আর খেলতে পারবেন না। শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের মেডিকেল কমিটির চেয়ারম্যান সিনিয়র প্রফেসর অর্জুনা ডি সিলভা ‘নিউজওয়্যার’কে জানিয়েছেন, দুষ্মন্ত চামিরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়বেন।

সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজও নিজেদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চামিরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েছেন। শ্রীলঙ্কার সংবাদকর্মী রেক্স ক্লেমেন্তিনও এ নিয়ে টুইট করেন, ‘জিলং থেকে জানা গেছে, চোটের কারণে দুষ্মন্ত চামিরা সম্ভবত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ছেন। তবে প্রমোদ মাদুশান ও গুনাতিলকার চোট তেমন মারাত্মক কিছু নয়। দ্বিতীয় রাউন্ডে তাঁদের পাওয়ার আশা আছে।’

পরে ক্রিকইনফো জানায়, চামিরার বাঁ পায়ের পেছনের মাংশপেশি ‘গ্রেড টু’ পর্যায়ে ছিঁড়েছে। এশিয়া কাপের আগে যে চোট (একই জায়গায়) পেয়েছিলেন, তার সঙ্গে এই চোটের সংযোগ আছে বলে মনে করা হচ্ছে। জিলংয়ের ঠান্ডা আবহাওয়া এই চোটকে আরও মারাত্মকও করে তুলেছে বলে মনে করছেন শ্রীলঙ্কা দলের চিকিৎসকেরা।

শুধু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপই নয়, চামিরাকে আরও অনেক দিন মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। অর্জুনা ডি সিলভা ক্রিকইনফোকে এ নিয়ে বলেছেন, ‘সে অবশ্যই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছে। তবে এই সময়টা সে গোড়ালিতে অস্ত্রোপচার করিয়ে কাজে লাগাতে পারে, যেটা তার দরকার হবে।’

আমিরাতের নিজের শেষ ওভারে শেষ বলটি করার আগে চোটে পড়েন চামিরা। ফিজিওর সহায়তা নিয়ে হতাশায় মাথা নাড়তে নাড়তে মাঠ ছাড়েন পায়ের চোটে এশিয়া কাপেও খেলতে না পারা ৩০ বছর বয়সী এই পেসার। শ্রীলঙ্কা দলে চোট আছে আরও। ব্যাটসম্যান দানুস্কা গুনাতিলকা ও পেসার প্রমোদ মাদুশানও হ্যামস্ট্রিংয়ে চোটে পড়েছেন। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে মাদুশানকে পাবেন না শানাকা।

শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম ‘ডেইলি মিরর’ জানিয়েছে, খেলোয়াড়েরা চোটে পড়ায় কলম্বো থেকে অস্ট্রেলিয়ায় খেলোয়াড় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক দাসুন শানাকা খেলোয়াড় চেয়েছেন। তবে কতজন প্রয়োজন, তা ঠিক করে বলতে পারেননি।
শানাকা এর আগে সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘দুজন খেলোয়াড় স্ট্যান্ডবাই আছে। তারা কখন (অস্ট্রেলিয়ায়) আসবে, জানি না। আমরা পরের ম্যাচ (নেদারল্যান্ডস) পর্যন্ত চালিয়ে নিতে পারব। কিন্তু টুর্নামেন্ট এগিয়ে চলার সঙ্গে কিছু বোলারও দরকার হবে। কজন লাগবে, তা এখনো ঠিক করা হয়নি। অবশ্যই দু-তিনজন পেসার তো এখানে দেখা যাবেই।’

জিলংয়ে কাল নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হওয়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন শানাকা। ওদিকে শ্রীলঙ্কান সংবাদমাধ্যম ‘নিউজওয়্যার’ জানিয়েছে, চামিরার বদলি আরেক পেসার কাসুন রাজিতা। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) সেক্রেটারি মোহন দা সিলভা এ তথ্য জানান সংবাদমাধ্যমটিকে। রাজিতাকেও স্কোয়াডে যুক্ত করা হয়েছে। তবে তা এখনো আইসিসির টেকনিক্যাল কমিটি এবং শ্রীলঙ্কার ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের অপেক্ষায়।

রাজিতা শিগগিরই অস্ট্রেলিয়ায় উড়াল দেবেন বলে জানিয়েছেন মোহন দা সিলভা। দলে যেহেতু আরও চোট আছে, তাই রাজিতার সঙ্গে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে অস্ট্রেলিয়ায় যাবেন পেসার আসিতা ফার্নান্ডো।