স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের গোপনীয়তায় সম্মান দেখানোর জন্য অনুসারীদের অনুরোধ করেছেন শাদাব। তবে মজা করে এও লেখেন যে কেউ উপহার পাঠাতে চাইলে তিনি নিজের অ্যাকাউন্ট নম্বর জানিয়ে দেবেন।

শাদাব অবশ্য পাত্রীর নাম বা সাকলায়েনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক কী উল্লেখ করেননি। তবে ডন নিউজের খবরে পাত্রী সাকলায়েনের মেয়ে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আনার পর শাদাবকে অভিনন্দন জানান তার জাতীয় দল সতীর্থরা। এর মধ্যে শাদাবের সঙ্গে তোলা একটি ছবি ইফতিখার আহমেদ টুইটে লেখেন, ‘এই ব্যক্তিটি আজ থেকে শুধু ভাই নয়, দুলা মিয়া ভাইও হয়ে গেছে। ভাইজানদের ক্লাবে স্বাগত শাদাব। শুভকামনা রইল।’ টুইটে সাকলায়েন মুশতাক ও তাঁর স্ত্রী সানা সাকলায়েনকে ট্যাগ করেছেন ইফতিখার।

এ ছাড়াও ইমাম উল হক, হাসান আলী, খুশদিল শাহ, হারিস রউফদের পাশাপাশি টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা, দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার তাবরেইজ শামসি শাদাবকে নতুন জীবনে পদার্পণের জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন।

পাকিস্তানের ডন নিউজ জানিয়েছে, পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের বিয়ে-পর্ব এখানেই শেষ হচ্ছে না। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি শহীদ আফ্রিদির মেয়ের সঙ্গে শাহিন আফ্রিদির বিয়ের দিন ধার্য আছে।