চলতি বছরের শুরুতে পাকিস্তানের মাটিতে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজ খেলেছিল নিউজিল্যান্ড। টেস্ট সিরিজ ড্র করলেও ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল পাকিস্তান। পাকিস্তান ঘরের মাঠে ২০২২ সালে কোনো টেস্টই জিততে পারেনি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজ ড্র করার আগে ঘরের মাঠে হেরেছে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের সিরিজে হেরেছে সব কটিতে।

অন্যদিকে ঘরের মাঠে একের পর এক সিরিজ জিতে চলেছে ভারত। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জেতা নিউজিল্যান্ড ভারতের মাটিতে সিরিজ খেলতে এসে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই হেরে বসেছে। সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে লড়াই করতে পারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে তো লড়াইটাও করতে পারেনি। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র  ১৫ রানের মধ্যেই  ৫ উইকেট পড়ে যায়।

শুরুর এই বিপর্যয় পরে কিছুটা কাটিয়ে ওঠা গেলেও নিউজিল্যান্ড ৩৪.৩ ওভারেই গুটিয়ে যায় ১০৮ রানে। যে রান ২০.১ ওভার আর ২ উইকেট হারিয়ে টপকে যায় ভারত। সব মিলিয়ে নিজ দেশে টানা রেকর্ড ৭টি দ্বিপক্ষীয় ওয়ানডে সিরিজ জিতছে রোহিতের দল। এই সিরিজের আগেও ঘরের মাঠে সব সংস্করণেই শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়েছিল ভারত।

ভারতের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ রমিজ নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ভারতের কাছ থেকে বাবর আজমদের শিখতে বললেন, ‘ভারতকে তাদের মাটিতে হারানো খুবই কঠিন। পাকিস্তানসহ উপমহাদেশের অন্য দলগুলোর তাদের কাছ থেকে শিখতে পারে। কারণ,পাকিস্তান দলেরও যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে, কিন্তু সিরিজ জয়ের ক্ষেত্রে ঘরের মাঠের পারফরম্যান্স ভারত দলের মতো ধারাবাহিক নয়। বিশ্বকাপের বছরে এটি ভারতের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক।’