শ্রীলঙ্কায় সংকট শুরু হওয়ার পর থেকেই সেখানে এশিয়া কাপ হবে কি না, এ নিয়ে আলোচনা চলছিল সদস্যদেশগুলোর মধ্যে। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কা দুটি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ সফলভাবে আয়োজন করলেও সংকটকালে দেশটির বহুজাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজনের সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল।

আজ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসিসির প্রধান জয় শাহ বলেছেন, ‘এশিয়া কাপ শ্রীলঙ্কায় আয়োজনের সব চেষ্টাই করা হয়েছে। আমিরাতে এশিয়া কাপ আয়োজনের বিষয়টিও নিশ্চিত হয়েছে অনেক অপেক্ষার পর। আরব আমিরাতে খেলা হবে, কিন্তু শ্রীলঙ্কাই আয়োজক দেশ থাকছে। এবারের এশিয়া কাপ আয়োজন সদস্যদেশগুলোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এ বছরই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। আমি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট ও আরব আমিরাত ক্রিকেটকে এশিয়া কাপ আয়োজনে সাহায্য করার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

এসিসির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান শাম্মি সিলভা। তাঁর কথা, ‘আমরা এশিয়ার প্রতিবেশীদের নিয়ে বহুল প্রতীক্ষিত এশিয়া কাপ আয়োজনের জন্য মুখিয়ে আছি। আমরা এসিসির সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত। বর্তমান পরিস্থিতিতে এশিয়া কাপ আয়োজনের জন্য আমরা এসিসি ও আমিরাত ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কাজ করে যাব। আশা করছি, আমরা রোমাঞ্চকর এশিয়া কাপ উপহার দিতে পারব।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন