ভারতের ক্রিকেট–ইতিহাসের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান দ্রাবিড়। ব্যাকরণসিদ্ধ ব্যাটিং তাঁকে দিয়েছিল ‘দ্য ওয়াল’ তকমা। ভারতীয় দলের অধিনায়কত্বও করেছেন। ১৬৪ টেস্ট খেলেছেন, করেছেন ১৩ হাজার ২৮৮ রান। ৩৩৪ ওয়ানডেতে রান ১০ হাজার ৮৮৯ রান। যেকোনো বিচারেই কিংবদন্তি। ইন্দোরের হোলকার স্টেডিয়ামের ড্রেসিংরুমের নাম তাঁর নামে দিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটে তাঁর অবদানের ছোট্ট একটা স্বীকৃতিই দেওয়া হয়েছে। তবে দ্রাবিড় নিজে মনে করেন, এট তাঁর প্রতি একধরনের ভালোবাসা, ‘দেখো, এমন কিছু তো দেখতে ভালো লাগেই। এত বছর ধরে মানুষের এত এত ভালোবাসা পেয়েছি দেখে আমি দারুণ কৃতজ্ঞ। ভারতে ক্রিকেটার হওয়াটা বিশাল একটা প্রাপ্তি। নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে হয় যে ক্রিকেটের কিছুটা প্রতিভা নিয়ে আমি জন্মেছিলাম বলেই খেলাটা খেলতে পেরেছি। সেই সঙ্গে দারুণ লাগে, যখন ভাবি, ক্রিকেটটা আমি দীর্ঘ দিন ধরেই খেলেছি। ড্রেসিংরুমে নিজের নাম দেখে সত্যি কথা বলতে কি, আমার একটু বিব্রতই লাগে। সেই সঙ্গে দারুণ কৃতজ্ঞও।’

কাল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে রোহিত শর্মা ও শুভমান গিলের দুই শতকে ৩৮৫ রানের পাহাড় গড়েছিল ভারত। রোহিত শতরান পেয়েছিলেন তিন বছর পর। জবাবে নিউজিল্যান্ড ২৯৫ রানের বেশি করতে পারেনি। ডেভন কনওয়ে শতরান করে লড়েছেন একাই।