default-image

গতকাল নির্ধারিত সময়ের প্রায় অর্ধেকেই খেলা শেষ হয়ে গেছে। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে এসে অলরাউন্ডার মঈন আলী ভবিষ্যৎ নিয়ে আশাবাদের কথা শুনিয়েছেন, ‘আমরা কিছু ম্যাচ হেরেছি। আমার ধারণা, ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করলে এটা আমাদের জন্য ভালোই। আশা করি, এর ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আমরা জিততে শুরু করব। এর মানে এটা নয় যে আমরা এখন জিততে চাইছি না। কিন্তু আমার মত হলো, আপনি তো সব ম্যাচ জিতবেন না। মাঝেমধ্যে হার থেকে আরও বেশি শেখা যায়, এটা ভালো দিক।’

ভারত সিরিজের আগে আচমকা অবসর নিয়েছেন বিশ্বকাপ জেতা অধিনায়ক এউইন মরগান। দায়িত্ব পেয়েছেন গত কয়েক বছর তাঁর সহকারীর ভূমিকায় থাকা বাটলার। শুরুতেই বেশ কঠিন সময় যাচ্ছে তাঁর। তবে এ নিয়ে চিন্তিত নন মঈন, ‘ও ভালো করবে, দলও ভালো করবে, এখনই আতঙ্কিত হওয়ার দরকার নেই, পরিবর্তন আনার দরকার নেই। আমাদের অনেক অভিজ্ঞ খেলোয়াড় আছে। আমরা যারা অভিজ্ঞ, তাদের এখন শুধু এগিয়ে আসতে হবে।’

default-image

সংক্ষিপ্ততর সংস্করণে ফর্ম হারানোয় খুব একটা চিন্তিত নন মঈন। তাঁর ধারণা, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার বেশি আগে ফর্মে থাকলেই বরং বিপদ। এর চেয়ে সময়মতো জ্বলে উঠতে পারলেই খুশি মঈন, ‘আমরা গত কয়েক বছর বেশ দাপট দেখিয়েছি। অনেক সাফল্য পেয়েছি। একটি বিশ্বকাপ জিতেছি। আপনি বেশি আগে ফর্মের চূড়ায় উঠতে চাইবেন না। এমন কিছু খেলোয়াড় আছে, দলকে শক্তিশালী করতে যাদের ফেরা দরকার।’

গতকাল ভারতের যশপ্রীত বুমরা ১৯ রানে ৬ উইকেট পেয়েছেন। অন্য পেসার মোহাম্মদ শামিও পেয়েছেন ৩ উইকেট। তাঁদের পেস ও মুভমেন্টের সামনে বেশ নাজেহাল হয়েছেন ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। স্বাগতিক দলের পেসাররা কিন্তু নিজেদের উইকেট থেকে সাহায্য পাননি। মঈনের ধারণা, তাঁদের মূল পেসার মার্ক উড ও জফরা আর্চার চোট থেকে ফিরলেই ইংলিশ পেস আক্রমণের চেহারা বদলে যাবে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন