default-image

২০৫, প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড, অ্যাডিলেড, ১৯৮৭

১৯৮৭ সালে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল অস্ট্রেলিয়ায় তিন টেস্টের সিরিজ খেলতে আসে। অ্যাডিলেডে অ্যালান বোর্ডার খেলেছিলেন ২০৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। ৪৮৫ বলে খেলা সেই ইনিংসের কল্যাণেই ৯ উইকেটের জয় পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়া সেবার ১-০ ব্যবধানে সিরিজটা জেতে। বোর্ডারের সেই ইনিংসে ছিল ২০টি বাউন্ডারি। কিউই বোলারদের নাকের জল, চোখের জল একাকার হয়ে গিয়েছিল ইনিংসের একপর্যায়ের বোর্ডারের মারমুখী ব্যাটিংয়ে।

১৯৬, প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড, লর্ডস, ১৯৮৫

ক্রিকেটের ‘কেন্দ্রভূমি’ লর্ডসে বোর্ডার সেদিন অল্পের জন্য দ্বিশতক করতে পারেননি। তবে তাঁর ১৯৬ রানের ইনিংসটি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়াকে এনে দিয়েছিল জয়। ৪০০ মিনিট উইকেটে ছিলেন তিনি, খেলেছিলেন ৩১৮ বল। দ্বিশতক থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতে ইয়ান বোথামের বলে আউট হয়েছিলেন বোর্ডার।

default-image

১৬৩, প্রতিপক্ষ ভারত, মেলবোর্ন, ১৯৮৫

ভারতের বিপক্ষে মেলবোর্ন টেস্টের সেই ইনিংস বোর্ডারের ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২৬২ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ভারত ৪৪৫ রান করে এগিয়ে যায় ১৮৩ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে বোর্ডার একাই নেতৃত্ব দেন সামনে থেকে। বোর্ডার ছাড়া অস্ট্রেলিয়ার কোনো ব্যাটসম্যানই ২৫ রানের বেশি করতে পারেননি সেদিন। তিনি ৪১০ মিনিট উইকেটে থেকে ৩১৮ বল খেলেন ১৬৩ রানের ইনিংস। ১৬ বাউন্ডারিতে গড়া সেই ইনিংসেই নিশ্চিত হারের হাত থেকে রক্ষা পেয়ে টেস্টটি ড্র করে অস্ট্রেলিয়া।

default-image

১৬২, প্রতিপক্ষ ভারত, চেন্নাই, ১৯৭৯

চেন্নাইয়ের (তখন মাদ্রাজ) গরমে ব্যাটিং করাটা ছিল খুব কঠিন একটা কাজ। সেই কঠিন কাজই সেদিন বোর্ডার করেছিলেন ১৬২ রান করে। ভারতের বিপক্ষে সেই ইনিংস ছিল ৩৬০ বলে। ছয় ঘণ্টা ধরে ব্যাটিং করে রানআউট হয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান। টেস্টটি শেষ পর্যন্ত ড্র হয়েছিল।

১৮১, প্রতিপক্ষ ভারত, মেলবোর্ন, ১৯৮১

বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন কন্ডিশনে নিজের সেরাটা দিয়ে গেছেন বোর্ডার। ভারতের বিপক্ষে তাঁর বেশ কয়েকটি সেরা ইনিংস আছে। ১৯৮১ সালে মেলবোর্নে ভারতের বিপক্ষে ১২ ঘণ্টা ব্যাটিং করে ২৬৫ বলে ১২৪ রান করেছিলেন। তবে তাঁর এই ধৈর্যশীল ইনিংসটা বিফলেই গিয়েছিল। ভারত টেস্ট ম্যাচটা জিতেছিল ৫৯ রানে।

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন