বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নেইমার সব শুনে, দেখে চরম হতাশ। তিনি মনে করেন, ব্রাজিল–সমর্থকদের কাছ থেকে আরও একটু সম্মান ও শ্রদ্ধা পেতে পারেন তিনি, ‘আমি জানি না ব্রাজিলের জার্সি গায়ে আমাকে আর কী করতে হবে! আর কী করলে ব্রাজিল–সমর্থকেরা এই নেইমারকে আরও একটু সম্মান করবে, আরও একটু শ্রদ্ধা জানাবে!’

গত সপ্তাহে চিলির বিপক্ষে ব্রাজিলের ১-০ গোলে জয়ের পর নেইমারকে নিয়ে খুব সমালোচনা হয়েছিল। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তো রীতিমতো ট্রলই ছড়িয়েছে। সে ম্যাচে বেশ কয়েকটি ছবিতে মনে হচ্ছিল, নেইমার কিছুটা মুটিয়ে গেছেন। নেইমার জার্সি তুলে পেট দেখিয়ে মাঠেই সেই সমালোচনার জবাব দিয়েছিলেন।

default-image

নেইমারের কাছে এসব নতুন কিছু নয়, ‘এটা কি নতুন কিছু? অনেক দিন ধরেই এসব হয়ে চলেছে। আপনারা যাঁরা সাংবাদিক আছেন, যাঁরা টেলিভিশনে ধারাভাষ্য দেন, সবাই মিলেই এসব করছেন। অনেক সময় আমি সাংবাদিকদের সাক্ষাৎকারই দিতে চাই না।’

মিডিয়ার সঙ্গে সব সময়ই অম্লমধুর সম্পর্ক নেইমারের। সেই সান্তোসে থাকার সময় থেকেই এমন। তাঁকে ভালোবাসার মানুষের অভাব নেই। কিন্তু পান থেকে চুন খসলে ধুয়ে দেওয়ার মানুষও কম নেই। নেইমার নিজেও তো সেই সলতেয় আগুন দিয়েছেন অনেক সময়। বিভিন্ন আচার-আচরণ, উদ্দাম জীবনযাপনেও ফুটে উঠেছে নেইমারের মধ্যকার অস্থিরতা।

আপাতত নেইমার ব্রাজিল–সমর্থকদের কাছ থেকে একটু বেশিই ভালোবাসা চান।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন