বিজ্ঞাপন

২০০৯-১০ মৌসুমের পর এই প্রথম ট্রফিহীন মৌসুম কাটাল রিয়াল। ছোট কিংবা বড়, কোনো ধরনের শিরোপাই এবার জেতেনি রিয়াল মাদ্রিদের কপালে। অনেকে বলতে পারেন, কই, বছর দুয়েক আগে জিদান যখন ক্লাব ছেড়ে বিদায় নিয়েছিলেন, রিয়ালকে সামলাতে যখন হুলেন লোপেতেগি আর সান্তিয়াগো সোলারিকে আনা হয়েছিল, তখনো তো শিরোপার স্বাদ পায়নি রিয়াল!

কিন্তু আসলে তা নয়, সেবারও ঠিকই ক্লাব শিরোপা জিতেছিলেন রামোস-বেনজেমারা। কিন্তু এবার তা-ও জোটেনি কপালে। চ্যাম্পিয়নস লিগে অধোবদনে বিদায় নিতে হয়েছে চেলসির কাছে হেরে, যে চেলসি কিছুদিন পরেই ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে নামবে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে। কোপা দেল রে তেও একই দশা। সেখানে আবার বার্সা, সেভিয়া কিংবা আতলেতিকোর মতো প্রতিষ্ঠত কোনো শক্তি নয়, রিয়াল হেরেছিল পুঁচকে আলকোয়োনের কাছে।

default-image

এমন শিরোপাশূন্য মৌসুম রিয়াল সর্বশেষ কাটিয়েছিল ১১ বছর আগে। রাউন্ড অব সিক্সটিনে সেবার ক্যাসিয়াস-রামোসদের হাতে বাতি ধরিয়ে দিয়েছিল আলকরকন নামের এক পুঁচকে ক্লাব। চ্যাম্পিয়নস লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে ফরাসি ক্লাব অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে হারতে হয়েছিল রিয়ালকে।

default-image

ওই ভুলে যাওয়ার মৌসুমের পর রিয়াল যথারীতি প্রতি মৌসুমেই কিছু না কিছু জিতেছে। সমর্থকদের ভালোবাসার প্রতিদান দিয়েছে। এগারো বছর পর সেই বাজে সময়টা আবারও যেহেতু ফিরে আসলই, এখন রিয়াল–সমর্থকদের প্রত্যাশা থাকবে আগেরবার যেমন রিয়াল ঘুরে দাঁড়িয়েছিল, এবারও যেন তা–ই হয়!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন