হ্যাটট্রিক করা রাউল বেসেরার কাঁধে উঠে উদযাপন তাঁর সতীর্থের
হ্যাটট্রিক করা রাউল বেসেরার কাঁধে উঠে উদযাপন তাঁর সতীর্থেরছবি: বসুন্ধরা কিংসের ফেসবুক পেজ

বিশ্ব ফুটবলে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বলা হয় ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনাকে। এ দুই দেশের দুই ফুটবলার আজ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ধসিয়ে দিয়েছেন আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে।

কুমিল্লায় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আরামবাগকে ৬-১ গোলে হারিয়েছে বসুন্ধরা কিংস। হ্যাটট্রিক করেছেন আর্জেন্টিনার রাউল বেসেরা ও ব্রাজিলের রবসন ডি সিলভা।

বসুন্ধরার বিপক্ষে মাঠে নামার আগপর্যন্ত ৭ ম্যাচে মোট ২২ গোল হজম করেছিল আরামবাগ। আজও যে বসুন্ধরার কাছে তারা উড়ে যাবে, তা অনুমেয় ছিল। দেখার বিষয় ছিল, কত গোল হজম করে তারা?

শেষ বাঁশি বাজার পর আরামবাগের হারের ব্যবধান ৬-১। এর আগে শেখ জামাল ধানমন্ডির কাছে ৬-০ গোলে হেরেছিল মতিঝিলের ক্লাবটি। অন্যদিকে লিগে এটি বসুন্ধরার সবচেয়ে বড় জয়।

বিজ্ঞাপন

অথচ রিজার্ভ বেঞ্চের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় নিয়ে আজ একাদশ সাজিয়েছিলেন বসুন্ধরা কোচ অস্কার ব্রুজোন। লিগে আজ প্রথমবারের মতো একাদশে খেলেছেন রাইটব্যাক তারিক রায়হান, মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ও ফরোয়ার্ড তৌহিদুল আলম।

খেলোয়াড়দের পরখ করে নেওয়ার সঙ্গে বড় জয়ও তুলে নিলেন ব্রুজোন।
রবসন ও বেসেরা পাল্লা দিয়ে গোল করেছেন। প্রথমার্ধে ৩-১ ব্যবধানের পর দ্বিতীয়ার্ধে আরামবাগের জালে আরও ৩ গোল করে বসুন্ধরা।

default-image

প্রথমার্ধে গোলে এগিয়ে ছিলেন রবসন আর দ্বিতীয়ার্ধে বেসেরা। ম্যাচের ৩ মিনিটেই গোলের খাতা খুলেছেন বেসেরা। আতিকুর রহমান ফাহাদের থ্রু নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান প্রান্ত থেকে ক্রস করেছিলেন তৌহিদুল। গোলমুখ থেকে শূন্যে লাফিয়ে হেডে বল জালে জড়িয়ে ১-০ করেন বেসেরা।

কিন্তু ১৬ মিনিটে নিহাত জামানের দুর্দান্ত গোলে সমতায় ফিরে অবাক করে দেয় আরামবাগ। সতীর্থ মিডফিল্ডার আরাফাত মিয়ার থ্রু থেকে বসুন্ধরা ডিফেন্ডার ইয়াসিন খানকে গতিতে ছিটকে ফেলে বক্সে ঢুকে দূরের পোস্টে প্লেসিংয়ে জালে জড়িয়েছেন তরুণ এ ফরোয়ার্ড।

লিগে এটি নিহাতের প্রথম ও আরামবাগের দলীয় তৃতীয় গোল। এরপর আর কখনোই প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের পরীক্ষা নিতে পারেনি তারা।

প্রথমার্ধের বাকি সময় রবসনের। ৩২ মিনিটে ২-১ করেছেন এই ব্রাজিলিয়ান। স্বদেশী মিডফিল্ডার জোনাথন ফার্নানদেজ ক্রস করলে হেডে ক্লিয়ার করেছিলেন আরামবাগ রাইটব্যাক মোহাম্মদ রকি। বল গিয়ে পড়ে রবসনের পায়ে।

পরে রকিকে সাইড স্টেপে কাটিয়ে বাঁ পায়ের শটে দূরের পোস্ট দিয়ে বল জালে। ১০ মিনিট পরেই সেই রবসনের পায়েই ব্যবধান ৩-১। অ্যাটাকিং থার্ডে বাঁ প্রান্ত দিয়ে কোনাকুনিভাবে বক্সে ঢুকে জোরালো শটে বল জালে জড়িয়েছেন রবসন।

আরামবাগের তরুণ ডিফেন্ডারদের বসুন্ধরার আক্রমণভাগের সামনে একেবারেই সাধারণ মনে হয়েছে। এ ছাড়া আরামবাগ খেলতে নেমেছিল একমাত্র বিদেশি নিয়ে। দ্বিতীয়ার্ধে প্রথম দুটি গোল বেসেরার।

default-image

বল নিয়ে ওপরে উঠে বাঁ প্রান্তে রিমন হোসেনকে পাস দিয়ে বক্সে জায়গা নিয়েছিলেন বসুন্ধরার ইরানি সেন্টারব্যাক খালিদ শাফেই। পরবর্তী সময়ে রিমনের ক্রসে খালেদ হেড করলে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বক্সের সামনে পড়ে। সেখান থেকে টোকা দিয়ে জালে পাঠিয়েছেন বেসেরা।

বিজ্ঞাপন

ব্রাজিলের রবসনের ২ গোল, আর্জেন্টিনার বেসেরারও ২ গোল। হ্যাটট্রিক করবেন কে ? প্রথমে করলেন বেসেরা। ৭৫ মিনিটে বদলি রাইটব্যাক সুশান্ত ত্রিপুরার ক্রস আরামবাগ ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে বক্সের মধ্যে পড়লে বাঁ পায়ের জোরালো শটে হ্যাটট্রিক করেছেন এই আর্জেন্টাইন। লিগে এ নিয়ে ৭ গোল করলেন তিনি।

আর্জেন্টাইন সতীর্থের পা থেকে হ্যাটট্রিক এসেছে। একই ম্যাচে ব্রাজিলিয়ানের সুযোগ থাকলে তিনিই–বা বাদ যাবে কেন! তিন মিনিট পর বেসেরার বাড়ানো বলেই হ্যাটট্রিক করেন রবসন। কোনাকুনিভাবে বক্সে ঢুকে ডান পায়ে জোরালো শটে গোলটি করেন তিনি।

default-image

লিগে এটি তাঁর নবম গোল এবং সর্বোচ্চ গোলদাতাও তিনি। তাঁদের আগে লিগে আরও দুটি হ্যাটট্রিক করেন শেখ জামাল ধানমন্ডির ওমর জোবে ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ওবি মোনেকে। কাকতালীয় বিষয় হলো চারটি হ্যাটট্রিকই হয়েছে আরামবাগের বিপক্ষে।

লিগে এ নিয়ে টানা ৮ ম্যাচে হারল আরামবাগ। শূন্য পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে তারা। ৯ ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে বসুন্ধরা।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন