ম্যানচেস্টার সিটির ডাগআউটে দাঁড়িয়ে হতাশ দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন দলটির কোচ পেপ গার্দিওলা।
ম্যানচেস্টার সিটির ডাগআউটে দাঁড়িয়ে হতাশ দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছেন দলটির কোচ পেপ গার্দিওলা। ছবি: রয়টার্স

কৌশলগত দিক থেকে বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচই মনে করা হয় তাঁকে। দুর্দান্ত কৌশল দিয়েই বার্সেলোনার হয়ে চার মৌসুমে তিনটি লা লিগা, দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগসহ মোট ১৪টি শিরোপা জিতেছেন পেপ গার্দিওলা। বার্সাপর্ব শেষ করে নতুন অভিযানের খোঁজে তিনি পাড়ি জমান জার্মানিতে। সেখানে তিন মৌসুমে ৩টি লিগ শিরোপাসহ বায়ার্ন মিউনিখকে জিতিয়েছেন ছোট–বড় মিলিয়ে মোট ৭টি শিরোপা। গার্দিওলা এখন ম্যানচেস্টার সিটির কোচ। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবের হয়েও শিরোপা উৎসবে ভাসছেন স্প্যানিশ কোচ। ২০১৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত সিটির হয়ে জিতেছেন ২টি প্রিমিয়ার লিগসহ ৮টি শিরোপা।

এই পেপ গার্দিওলারই একটি কৌশলগত কাজ মেনে নিতে পারছেন না ফুটবল–পণ্ডিত ও ম্যানচেস্টার সিটির সাবেক খেলোয়াড়েরা। মেনে নেবেনই–বা কী করে, কাল যে এফএ কাপের সেমিফাইনালে তাঁর কৌশল হেরে গেছে চেলসির জার্মান কোচ টমাস টুখেলের কৌশলের কাছে! চেলসির কাছে ১-০ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচ শেষে গার্দিওলার একাদশ নির্বাচন আর কিছু কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ফুটবল–পণ্ডিতেরা।

default-image

এটা ঠিক যে আগামী ১১ দিনে ম্যান সিটিকে প্রিমিয়ার লিগ, লিগ কাপের ফাইনাল আর চ্যাম্পিয়নস লিগ মিলিয়ে অনেক ম্যাচ খেলতে হবে। এ কারণে গার্দিওলা একটু বেশিই অদলবদল করে খেলানোর নীতিতে চলে গেছেন। এর প্রভাবটা এফএ কাপের ফাইনালে খুব বেশি করে পড়েছে বলে মনে করেন পণ্ডিতেরা। কাল অনেক দিন পর আক্রমণভাগে রিয়াদ মাহরেজের জায়গায় রাহিম স্টার্লিংকে খেলিয়েছেন গার্দিওলা। শুরুর একাদশে উংয়ে খেলিয়েছেন ফেরান তোরেসকে। মাঝমাঠে শুরুর একাদশে ছিলেন ফার্নান্দিনিয়ো। রক্ষণে যেমন অনেক দিন পর জন স্টোনসের জায়গায় খেলেছেন লাপোর্তা। সব মিলিয়ে মাঠে সিটির খেলোয়াড়দের মধ্যে একটা খাপছাড়া ভাব চোখ পড়েছে টটেনহাম ও নিউক্যাসলের সাবেক মিডফিল্ডার জার্মেইন জেনাসের কাছে।

default-image
বিজ্ঞাপন

ম্যাচ শেষে বিবিসি রেডিও ফাইভের সরাসরি সম্প্রচারিত বিশ্লেষণাত্মক অনুষ্ঠানে জেনাস বলেছেন, ‘অনেক পরিবর্তন করা হয়েছে। এর নেতিবাচক একটা প্রভাব সিটির খেলায় পড়েছে। আক্রমণভাগের ত্রয়ী তো একেবারেই নিষ্প্রভ ছিল। আমি এটা মানতেই পারছি না যে গার্দিওলা আজও (কাল এফএ কাপের সেমিফাইনালে) তার সেরা একাদশটা খেলাল না।’

প্রতিপক্ষের মাঝমাঠ নিষ্ক্রিয় করে দিয়ে পাল্টা–আক্রমণের সিটিকে গায়েল করার টমাস টুখেলের কৌশলের কাছে গার্দিওলা হেরে গেছেন, নাকি সেরা একাদশ না খেলানোর খেসারত দিতে হয়েছে? বিষয়টি বিশ্লেষণ করতে গিয়ে ম্যানচেস্টার সিটির সাবেক ডিফেন্ডার মিকাহ রিচার্ড বিবিসি ওয়ানকে বলেছেন, ‘আটটি পরিবর্তন একটু বেশিই। সিটির খেলায় কোনো তেজ ছিল না। চ্যাম্পিয়নস লিগের পর তাদের একটু ক্লান্ত লাগছিল। তবে চেলসিকেও কৃতিত্ব দেব আমি। সিটিকে খুব কমই সুযোগ দিয়েছে তারা।’

জার্মান বুন্দেসলিগার দল বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কোচ থাকার সময় গার্দিওলার বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে পাঁচটি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছেন টুখেল। পাঁচবারই হেরেছে টুখেলের দল। অতীত অভিজ্ঞতা থেকে ভালোভাবেই শিক্ষা নিয়েছেন চেলসির জার্মান কোচ। তিনি বুঝে গেছেন গার্দিওলার সিটিকে আটকাতে হলে স্বাভাবিক খেলাটা রুখে দিতে হবে। টুখেল কাল তাঁর খেলোয়াড়দের দিয়ে সেটিই করিয়েছেন। সিটির স্বাভাবিক খেলা রুখে দিয়ে পাল্টা–আক্রমণ করার মন্ত্রটা সফল হয়েছে ৫৫ মিনিটে। দুর্দান্ত এক পাল্টা–আক্রমণ থেকে টিমো ভেরনারের পাসে হাকিম জিয়াখের গোলে এগিয়ে যায় তারা। শেষ পর্যন্ত সেই গোলটিই হয়ে যায় ফল–নির্ধারক।

default-image

ম্যাচ শেষের বিশ্লেষণে ইংল্যান্ডের কিংবদন্তি স্ট্রাইকার অ্যালান শিয়ারারের বিশ্লেষণ, ‘চেলসির কৌশল ছিল ম্যানচেস্টার সিটির খেলা বন্ধ করে দেওয়া। সিটি ওপরে উঠে খেলেছে। এ কারণে ভেরনার তার গতি ব্যবহার করে খেলতে পেরেছে। আর এটা খুব ভালোভাবে কাজে লেগেছে।’ এরপর শিয়ারার যোগ করেন, ‘সিটি সাধারণত অনেক পাস খেলে প্রতিপক্ষকে বিভ্রান্ত করে ফেলে। চেলসি এই কৌশলের ফাঁদে পড়েনি। পজিশন ঠিক রেখে তারা রক্ষণটা অভেদ্য রেখেছে। চেলসি খুব জমাট ছিল। সে পদ্ধতিতে (টুখেল দলকে) খেলিয়েছেন, সেটাতে তারা মানিয়ে নিতে পেরেছে।’

বার্সেলোনার হয়ে ২০০৯ সালে এক বছরে সম্ভব ৬টি শিরোপা জিতেছিলেন গার্দিওলা। এবার সিটির হয়ে এ মৌসুমে চারটি শিরোপা জয়ের পথ খোলা ছিল তাঁর। কিন্তু এফএ কাপের সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে পড়ায় সেই সুযোগটা হারিয়েছেন স্প্যানিশ কোচ। এর জন্য পরে হয়তো তিনি পস্তাবেন বলে মনে করেন আর্সেনালের সাবেক ডিফেন্ডার লি ডিক্সন। ম্যাচ শেষে ডিক্সন বলেছেন, ‘গার্দিওলা ম্যাচটির দিকে ফিরে তাকিয়ে যখন দেখবেন, নিশ্চয়ই তিনি আফসোস করবেন তাঁর দল একটি সুযোগ হাতছাড়া করেছে।’

default-image

ডিক্সন বিষয়টিকে সিটির জন্য হতাশারই মনে করেন, ‘মৌসুম শেষে সিটির যদি দুই বা তিনটি ট্রফি থাকে, সেটাও ভালো। এরপরও এই ট্রফিটি (এফএ কাপ) না জেতার জন্য হতাশায় ভুগবে তারা।’ সিটির সামনে এখন তিনটি শিরোপা জয়ের হাতছানি—চ্যাম্পিয়নস লিগ, প্রিমিয়ার লিগ ও লিগ কাপ। এই মুহূর্তে তারা চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে আছে, নিজেদের মাঠে পিএসজির বিপক্ষে প্রথম লেগটি তারা খেলবে ২৮ এপ্রিল। এর আগেই ২৫ এপ্রিল তারা খেলবে লিগ কাপের ফাইনালে, প্রতিপক্ষ টটেনহাম। আর লিগে তারা খুব ভালোভাবেই এগিয়ে আছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের চেয়ে ১১ পয়েন্ট বেশি গার্দিওলার দলের।

বিজ্ঞাপন
ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন