বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কন্তে কিন্তু কোচ হিসেবে সাফল্য পেয়ে বসে থাকার লোক নন। তিনি নিত্যনতুন চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসেন। এরই মধ্যে তিনি শুরু করে দিয়েছেন পরের মৌসুম নিয়ে পরিকল্পনা। এই জায়গাতেই ইন্টারের সঙ্গে বনিবনা হয়নি তাঁর। সে কারণেই চাকরিটা তিনি ছেড়ে দিয়েছেন।

default-image

জিদান কিংবা কন্তেকে বাদ দিলে ইউরোপজুড়েই চলছে কোচ ছাঁটাইয়ের ব্যাপার-স্যাপার। ফুটবলে এটা খুবই স্বাভাবিক। কোচরা তো ছাঁটাই হতেই মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকেন। এক মৌসুমে কোনো ক্লাবের ব্যর্থতার দায়ভার কোচের ওপর বর্তাবে—এটাই তো স্বাভাবিক। মৌসুম শেষ হতে না হতেই ছাঁটাই হয়েছেন ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাবের কোচ। তারা এখন হন্যে হয়ে খুঁজছে নতুন কোচ। রিয়াল মাদ্রিদ, ইন্টার মিলান তো বটেই, টটেনহাম, নাপোলি, লাৎসিও—এমন অনেক ক্লাবই নেমেছে নতুন কোচ নিয়োগ দেওয়ার প্রতিযোগিতায়। এখন কে আসছেন আর কে যাচ্ছেন! কোন কোচের প্রস্তাব কোন কোন ক্লাব থেকে! কোচ খোঁজার এ সময় কোন ক্লাবের কী অবস্থা, আসুন একবার দেখে নেওয়া যাক।

রিয়াল মাদ্রিদ

জিনেদিন জিদানের রিয়াল ছাড়ার গুঞ্জনটা ছিলই। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলোও জানিয়ে দিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদে আর থাকছেন না জিনেদিন জিদান। সংবাদটা চাউর হয়ে যাওয়ার পরও ক্লাব কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু বলেনি। অবশেষে গতকাল রিয়াল বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে আসলেই তাদের সঙ্গে ‘বিচ্ছেদ’ ঘটে গেছে ফরাসি গ্রেটের। স্বাভাবিকভাবেই এখন আলোচনা, জিদানের উত্তরসূরি হতে যাচ্ছেন কেন!

default-image

প্রথমে শোনা যাচ্ছিল জিদানের উত্তরসূরি হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন জুভেন্টাস ও এসি মিলানের সাবেক কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি। কিন্তু এখন তো শোনা যাচ্ছে অন্য কথা। আলেগ্রি নাকি জুভেন্টাসে যাচ্ছেন। এটাও বিশ্বস্ত সূত্রেরই খবর। ২০১৯ সালের জুনে জুভেন্টাসকে টানা পাঁচ লিগ শিরোপা জিতিয়ে দায়িত্ব ছেড়েছিলেন তিনি। পুরোনো কর্মক্ষেত্রেই এখন ফিরতে যাচ্ছেন আলেগ্রি।

তবে আলেগ্রি যদি না আসেন রিয়ালে, সে ক্ষেত্রে যুবদলের কোচ রাউল গঞ্জালেস, বেলজিয়ামের ম্যানেজার রবের্তো মার্তিনেজ, পিএসজির বর্তমান কোচ মরিসিও পচেত্তিনো কিংবা সদ্য সাবেক হওয়া ইন্টারের কোচ আন্তোনিও কন্তের দিকে হাত বাড়াতে পারে রিয়াল।

জুভেন্টাস

নিজেদের ‘ঘরের ছেলে’ আন্দ্রেয়া পিরলোকে খুব আশা করে কোচের দায়িত্ব দিয়েছিল জুভেন্টাস। কিন্তু সাবেক ইতালীয় তারকা হয়তো ভাবতেও পারেননি, তাঁর হাত ধরেই ব্যর্থতা আসবে ক্লাবে। টানা নয় বছর সিরি ‘আ’ জিতে জুভেন্টাস সেটিকে প্রায় নিজেদের সম্পত্তিই বানিয়ে ফেলেছিল। কিন্তু এবার লিগ শিরোপার হাত বদল করতে হলো। পিরলোর অধীনে কেবল কোপা ইতালিয়ার শিরোপাই জিতেছে জুভেন্টাস। কিন্তু জুভেন্টাসের মতো ক্লাবের কাছে এমনটা তো ব্যর্থতাই। দায়ভার তো পিরলোকে নিতে হবেই।

default-image

ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমের খবর, শিগগিরই ছাঁটাই হচ্ছেন পিরলো। আর তাঁর জায়গায় আনা হচ্ছে সাবেক কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রিকে। ২০১৪ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত টানা পাঁচ বছর জুভেন্টাসকে লিগ জিতিয়ে দায়িত্ব ছেড়েছিলেন, এরপর অন্য কোনো ক্লাবে যোগ দেননি। রিয়ালের কোচ হওয়ার জন্য বহুদিন অপেক্ষায় ছিলেন, কিন্তু জিনেদিন জিদানের ভবিষ্যৎ নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ তাড়াতাড়ি কোনো সিদ্ধান্ত নিতে না পারার কারণে আলেগ্রি জুভেন্টাসের দিকে চোখ ফিরিয়েছেন। স্পেন ও ইতালির কিছু গুরুত্বপূর্ণ সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে আলেগ্রিকে নাকি আজ-কাল, যেকোনো সময়ের মধ্যে নিয়োগপত্র দিয়ে দেওয়া হবে।

টটেনহাম হটস্পার

মাসখানেক আগে জোসে মরিনিওকে ছাঁটাই করার পর থেকে ভারপ্রাপ্ত কোচ দিয়ে কাজ চালাচ্ছে টটেনহাম। মৌসুম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই ভারপ্রাপ্ত কোচ রায়ান মেসনের দায়িত্বও ফুরিয়েছে। কোচ খোঁজার কাজে তাই নেমেছে স্পার্সও। পিএসজি থেকে নিজেদের সাবেক কোচ মরিসিও পচেত্তিনোকে আনার ব্যাপারে নাকি বেশ মরিয়া টটেনহাম—কয়েক দিন ধরে এমনটাই শোনা যাচ্ছে।

default-image

২০১৯ সালের শেষ দিকে টটেনহামের কোচ থাকা অবস্থায় পচেত্তিনো বুঝেছিলেন, উন্নতির ধারাটা ধরে রাখতে কিছু খেলোয়াড়কে বিক্রি করে দিতে হবে। কিনতে হবে নতুনদের। সে সময় দলের সভাপতি ড্যানিয়েল লেভি পচেত্তিনোকে পাত্তাই দিতে চাননি। যখন দল খারাপ করা শুরু করল, তখন উল্টো ছাঁটাই হতে হয়েছে আর্জেন্টাইন কোচকে। পচেত্তিনো এরপর যোগ দেন পিএসজিতে। দেড় বছর পর পচেত্তিনোর প্রতি আবার টটেনহাম-কর্তৃপক্ষের আগ্রহ প্রমাণ করেন, সে সময় তাঁর খেলোয়াড়দের বিক্রি করা আর কেনার ধারণাটাই সঠিক। পচেত্তিনো ছাড়াও টটেনহামের নজরে আছেন ব্রাইটনের ইংলিশ ম্যানেজার গ্রাহাম পটার, লেস্টার সিটির নর্দার্ন আইরিশ ম্যানেজার ব্রেন্ডন রজার্স, রোমার সাবেক ম্যানেজার পাওলো ফনসেকা ও বেলজিয়ামের ম্যানেজার রবের্তো মার্তিনেজ।

তবে মজার ব্যাপার হচ্ছ, সাবেক টটেনহাম ও জার্মান তারকা ইয়ুর্গন ক্লিন্সম্যান নাকি কোচ হওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন। কিন্তু ক্লিন্সম্যানকে নাকি কোচ করতে চাচ্ছে না টটেনহাম।

পিএসজি

ফরাসি সংবাদমাধ্যমের খবর, আধা মৌসুম নেইমার-এমবাপ্পেদের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেই হাঁপিয়ে গেছেন টটেনহামের সাবেক ম্যানেজার মরিসিও পচেত্তিনো। ক্রীড়া পরিচালক লিওনার্দোর সঙ্গে তাঁর বিরোধের ব্যাপারটাও সামনে চলে আসছে। এ সুযোগে পচেত্তিনোকে আবারও দলে নেওয়ার ব্যাপারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে টটেনহাম। ওদিকে পিএসজিতে পচেত্তিনোর অবস্থান নড়বড়ে দেখে সুযোগ খুঁজছে রিয়ালও।

পচেত্তিনোকে যদি ছাড়তে হয়, সে ক্ষেত্রে পিএসজির কোচ হওয়ার দৌড়ে চলে আসতে পারেন জিদান, কন্তের মতো বড় বড় নামও।

default-image

বায়ার্ন মিউনিখ

কোচ বদলের হিড়িক পড়লেও আগেই নিজেদের কাজ এগিয়ে রেখেছে বায়ার্ন। হান্সি ফ্লিক দায়িত্ব ছাড়বেন, সেটি আগেই জানা হয়ে গিয়েছিল। ফ্লিকের জায়গায় তড়িঘড়ি করে লাইপজিগের ইউলিয়ান নাগলসমানকে নিয়োগ দিয়েছে তারা, নাগলসমানকে কোচ করতে আগ্রহী ছিল রিয়াল মাদ্রিদের মতো ক্লাবও। তারা চেষ্টাও চালিয়েছিল। ওদিকে ফ্লিক বায়ার্নের দায়িত্ব ছেড়ে যোগ দিচ্ছেন জার্মানি জাতীয় দলে। ইউরোর পরেই কাজ শুরু করবেন গত মৌসুমে বায়ার্নকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানো এই কোচ।

ইন্টার মিলান

গত দুদিন ধরে টালমাটাল অবস্থা ইন্টারে। লিগ শিরোপা জয়ের আনন্দটাই যেন মাটি হয়ে যাওয়ার উপক্রম তাদের। সেটি আন্তোনিও কন্তের দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার জন্যই। ক্লাবের সঙ্গে নিজের লক্ষ্য মিলছে না, এমন একটা কারণেই ইন্টারের দায়িত্ব ছেড়েছেন ইতালিয়ান কোচ। ইন্টারও আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে নিশ্চিত করেছে ব্যাপারটা। নতুন কোচ হিসেবে লাৎসিওর সিমোনে ইনজাঘিকে দলে টানছে সিরি ‘আ’র সদ্য জয়ীরা।

default-image

লাৎসিও

ইন্টার থেকে কন্তের বিদায় প্রভাব ফেলেছে লাৎসিওর ওপরেও। কন্তের বিকল্প হিসেবে লাৎসিওর কোচ সিমোনে ইনজাঘিকে মনে ধরেছে ইন্টারের। ইনজাঘিও ইন্টারের আগ্রহের ব্যাপারে জানতে পেরে লাৎসিওর কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন গত রাতে। ইন্টারের ক্রীড়া পরিচালক জিওসেপ্পে মারোত্তা জানিয়ে দিয়েছেন, খুব তাড়াতাড়ি নতুন কোচের নাম ঘোষণা করা হবে। সেটি যে ইনজাঘিই হতে চলেছেন, সে ব্যাপারে তেমন কোনো সন্দেহ নেই। ইনজাঘির জায়গায় এসি মিলানের সাবেক কোচ সিনিসা মিহায়লোভিচ কিংবা বেকার হয়ে বসে থাকা সাবেক জুভেন্টাস ও চেলসি কোচ মরিজিও সারি আসতে পারেন লাৎসিওতে।

এএস রোমা

এদিকে লাৎসিওর প্রতিবেশী এএস রোমা কোচ নিয়োগের কাজটা আগেই সেরে ফেলেছে। পাওলো ফনসেকাকে সরিয়ে জোসে মরিনিওকে এনে রীতিমতো চমকই দিয়েছে তারা।

default-image

বরুসিয়া ডর্টমুন্ড

লুসিয়ান ফাভরাকে ছাঁটাই করার পর টটেনহামের মতো ভারপ্রান্ত কোচ দিয়েই মৌসুম শেষ করেছে ডর্টমুন্ড। সেই ‘ভারপ্রাপ্ত’ এরেন তেরজিক আবার জার্মান কাপও জিতিয়েছেন তাদের। কিন্তু এই সাফল্যের পরও তেরজিককে পূর্ণাঙ্গ মেয়াদে দায়িত্ব দিচ্ছে না বরুসিয়া। আগামী মৌসুমে দলের কোচ হিসেবে আসছেন বরুসিয়া মনশেনগ্লাদবাখের সদ্য বিদায়ী কোচ মার্কো রোজ।

বরুসিয়া মনশেনগ্লাদবাখ

মার্কো রোজ চলে যাওয়ার কারণে মনশেনগ্লাদবাখের কোচের পদটাও ফাঁকা হয়ে গেছে। সে জায়গায় আনা হচ্ছে ফ্রাঙ্কফুর্টের কোচ আদি হুটারকে। তিন বছরের জন্য মনশেনগ্লাদবাখের সঙ্গে চুক্তি সই করেছেন তিনি।

আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট

ফ্রাঙ্কফুর্টের নতুন কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন ভলফসবুর্গের ৪৬ বছর বয়সী অস্ট্রিয়ান কোচ অলিভার গ্লাসনার। ফ্রাঙ্কফুর্টের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি সই করেছেন এই অস্ট্রিয়ান কোচ।

ভলফসবুর্গ

গ্লাসনার চলে যাওয়ার পর কোচ খুঁজতে নেমেছে ভলফসবুর্গও। নতুন কোচ হিসেবে পিএসভি আইন্দহোভেনের সাবেক কোচ ও বায়ার্ন মিউনিখ ও বার্সেলোনার সাবেক তারকা ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার মার্ক ফন বোমেলকে মনে ধরেছে দলটার

default-image

নাপোলি

আগামী মৌসুমের নাপোলির চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলা হচ্ছে না, এটা নিশ্চিত হওয়ার পরই কোচ জেনারো গাত্তুসোকে বিদায় করে দিয়েছে নাপোলি। চলছে কোচের খোঁজ। রোমা, ইন্টারের সাবেক কোচ লুসিয়ানো স্পালেত্তি, লিলের কোচ ক্রিস্তোফার গালতিয়ের, পোর্তোর কোচ সের্হিও কনসেইচ্যাও, রোমার সাবেক কোচ পাওলো ফনসেকার মধ্যে একজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে নাপোলির নতুন কোচ হিসেবে—এমন খবরই দিচ্ছে ইতালির সংবাদমাধ্যমগুলো। কিন্তু নাপোলি সভাপতি অরেলিও দি লরিনাইতিস সাফ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, অন্য কোনো দেশের কোচ নিয়োগ দেবেন না তিনি। সে হিসেবে দৌড়ে স্পালেত্তিই এগিয়ে।

ফিওরেন্তিনা

কোচ দরকার ছিল ফিওরেন্তিনারও। জিওসেপ্পে ইয়াচিনিকে ছাঁটাই করার পর বেশ কিছুদিন ধরেই নতুন কোচের সন্ধানে ছিল তারা। নাপোলি জেনারো গাত্তুসোকে ছাঁটাই করেছে—শোনার পরই আর বেশি দেরি করেনি তারা। এক দিন বেকার থাকতে না থাকতেই ফিওরেন্তিনায় চাকরি পেয়ে গেছেন এসি মিলানের সাবেক এই খেলোয়াড় ও ম্যানেজার।

শাখতার দোনেৎস্ক

লুইস কাস্ত্রোকে বিদায় করে দিয়ে সাসসুয়োলোর প্রতিভাবান ইতালিয়ান কোচ রবের্তো দে জেরবিকে দায়িত্ব দিয়েছে শাখতার। ওদিকে দে জেরবির জায়গায় সাসসুয়োলো আনছে স্পেৎসিয়ার কোচ ভিনসেঞ্জো ইতালিয়ানোকে।

default-image

অলিম্পিক লিওঁ

ফরাসি কোচ রুডি গার্সিয়া লিওঁ ছাড়ছেন—এই খবর আগের। নিজেদের পরবর্তী ম্যানেজার হিসেবে লিঁও সদ্য লিগ আঁজয়ী ক্রিস্তোফ গালতিয়েরকে চাচ্ছে। যদিও গালতিয়ের সে প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। লিওঁর নজরে আছেন মোনাকোর সাবেক কোচ লিওনার্দো জার্দিম ও আয়াক্সের সাবেক কোচ পিটার বশচ

লিল

নেইমার-এমবাপ্পেদের হারিয়ে লিগ জিতেই লিলের দায়িত্ব ছেড়েছেন ফরাসি কোচ ক্রিস্তোফ গালতিয়ের। তাঁর জায়গায় লিল কাকে আনবে, এখনো নিশ্চিত নয় সেটি।

উলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স

মৌসুম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উলভসের দায়িত্ব ছেড়েছেন পর্তুগিজ ম্যানেজার নুনো এস্পিরিতো সান্তো। দলটার নতুন কোচ হতে পারেন বেনফিকার পর্তুগিজ কোচ ব্রুনো লাগে।

default-image

ভ্যালেন্সিয়া

কোচ হাভি গ্রাসিয়াকে কয়েক দিন আগেই ছাঁটাই করেছিল ভ্যালেন্সিয়া। এবার সেখানে চলে এসেছেন নতুন কোচ। নিয়োগ পেয়েছেন হেতাফের সাবেক ম্যানেজার হোসে বোর্দালাস।

বায়ার লেভারকুসেন

বায়ার লেভারকুসেনের নতুন কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন ৪২ বছর বয়সী সুইস কোচ জেরার্ডো সিওয়ানে। ২০২৪ সাল পর্যন্ত ৪ বছরের চুক্তি সই করেছেন তিনি। কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর জিতেছেন টানা তিনটি সুইস লিগ শিরোপা এবং একটি সুইস কাপ।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন